বাংলাদেশ প্রতিবেদক: দীর্ঘ ছুটি শেষ হলেও ঈদ কাটেনি মুলাদী উপজেলার কর্মকর্তাদের। বৃহস্পতিবার ঈদের ছুটি শেষে অফিস খোলার প্রথম দিনে ছিলেন না ১৭ দপ্তরের কর্মকর্তা। ফলে উপজেলা প্রশাসনের বেশিরভাগ দপ্তরেই কাজ করতে পারেননি সেবাগ্রহীতারা।

উপজেলা দপ্তর ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর মোহাম্মদ হোসাইনী, উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ব্যবস্থাপক মহিউদ্দীন আহমেদ নিজেদের অফিস করেছেন।

সকাল সাড়ে ১০টায় দপ্তরে ছিলেন না উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম, আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা সীমা ইয়াসমিন, মৎস্য কর্মকর্তা সুব্রত গোস্বামী, কৃষি কর্মকর্তা মো. মনিরুল ইসলাম, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আনোয়ার হোসেন, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রন কর্মকর্তা মো. তহিদুর রহমান, উপজেলা প্রোগ্রামার মো. গোলাম মহিউদ্দীন, উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মো. জিল্লুর রহমান, পল্লী দারিদ্র বিমোচন ফাউ-েশন ব্যবস্থাপক ইয়াকুব আলী, উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা সুনীল বরণ মজুমদার, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এস.এম জাকিরুল হাসান, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা হানিফ শিকদার, উপজেলা প্রকৌশলী মো. তানজিলুর রহমান, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা উত্তম কুমার বিশ্বাস, উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর মোহাম্মদ হোসাইনী বলেন, উপজেলার ১৭ দপ্তরের কর্মকর্তাদের অনুপস্থিতির বিষয়টি জানা নেই। তবে খোঁজ নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Previous articleমুলাদীতে মামা বাড়ি বেড়াতে এসে বিদ্যুতায়িত হয়ে শিশুর মৃত্যু
Next articleকলাপাড়ায় যাত্রীবাহী বাসে মাতলামি, ৬ যুবক আটক
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।