আহম্মদ কবির: দেশ স্বাধীনতার পর থেকে বংশীকুন্ডা বাজার হতে কাউহানি পর্যন্ত একটি পাকা রাস্তার স্বপ্ন দেখছেন সুনামগঞ্জের নবগঠিত মধ্যনগর উপজেলার বংশীকুন্ডা দক্ষিণ ইউনিয়নের ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডবাসী।কিন্তু স্বাধীনতার ৫১বছর পেরিয়ে গেলেও,আজও তাদের সেই স্বপ্ন শুধু স্বপ্নই রয়ে গেছে।

স্থানীয় ভুক্তভোগীরা জানান আমাদের কয়েকটি গ্রামের যোগাযোগের একটি মাত্র রাস্তা, যে রাস্তা দিয়ে আমাদের বংশীকুন্ডা বাজারসহ স্কুল কলেজ ও ইউনিয়ন পরিষদে যাতায়াত করতে হয়।তারা বলেন স্বাধীনতার পর থেকে এই রাস্তার উন্নয়ন বলতে আমরা দেখেছি এই রাস্তার কিছু অংশে মাটি ভরাট ও একটি কালভার্ট করা হয়েছে। কিন্তু সামান্য বৃষ্টি হলেই সে সব মাটি কাঁদায় পরিনত হয়ে খানা ধন্দের সৃষ্টি হয়ে বর্তমানে চলাচলের অনুপযোগী। তাই আমরা বিকল্প রাস্তা হিসাবে হাওরের মধ্যভাগে ক্ষেতের আইল দিয়ে নোংরা জল পেড়িয়ে যাতায়াত করি।

স্থানীয় কাউহানি গ্রামের একাধিক জন অত্যন্ত ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান আমাদের কয়েকটি গ্রামের যোগাযোগের একমাত্র রাস্তাটির উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি উল্টো বেড়েছে জন দুর্ভোগ। প্রতিদিন ৫-৬টি গ্রামের হাজার হাজার মানুষের পোহাতে হয় চরম ভোগান্তি।

গতকাল শনিবার দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখাযায় কাঁদায় পরিনত হয়ে চলাচলে একেবারেই অনুপযোগী। স্কুল কলেজ পড়ুয়া ছাত্রছাত্রীসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ বিকল্প রাস্তা হিসাবে হাওরের মধ্যভাগে ক্ষেতের আইল দিয়ে যাতায়াত করছে।কেউবা আবার হাটুর সমান নোংরা জল পেড়িয়ে কাপড় ভিজিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে যাতায়াত করছে।

স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যাক্তি ও সুশীল সমাজ প্রতিনিধি এনামুল হক (শান্ত)বলেন,উপজেলার প্রায় সকল গ্রামেরই অবকাঠামো উন্নয়নে সরকারের বিশেষ কোন বরাদ্দ দিয়ে যাতায়াতের জন্য রাস্তার উন্নয়ন হলেও,এই রাস্তার উন্নয়ন না হওয়ায় স্থানীয় দায়িত্বশীলরা অযোগ্যতার পরিচয় দিলেন।বছরের পর বছর এই এলাকার মানুষ ভাঙা ও কাচা রাস্তার কারণে যাতায়াত চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে। একটু বৃষ্টি হলেই কাঁদায় পরিনত হয়ে পড়ে, বিশেষ করে বৈশাখ মাসে ধান তোলার সময় দুর্ভোগের শিকার হয় এই অঞ্চলের কৃষকেরা।

এ ব্যাপারে বংশীকুন্ডা দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ রাসেল আহমদ বলেন বংশীকুন্ডা হতে কাউহানি ও রংচী হতে বংশীকুন্ডা এই দুটি রাস্তার উন্নয়ন করতে আমি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি,সসম্প্রতি পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে কিছু কাজ হয়েছে,আগামীতে করলে অনেকটাই এগিয়ে যাবে,যে টুকু থাকে আমি যে কোন মূল্যে শেষ করবো, উনি আরো বলেন এই দুটি রাস্তা দিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভাল না থাকায় আমাদের সমাজ ব্যবস্থাটাও বিচ্ছিন্ন তাই রাস্তা দুটির উন্নয়ন করা জরুরী।

Previous articleমাথায় করে ধান বাড়িতে আনার পথে বজ্রপাতে শ্রমিকের মৃত্যু
Next articleচুরির অপবাদ সইতে না পেরে যুবকের আত্মহত্যা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।