বাংলাদেশ প্রতিবেদক: টাকা চুরির অপবাদ সইতে না পেরে নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় মো.সোহেল (২০) নামের এক যুবক গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

মৃতসোহেল ভোলার তজুমউদ্দিন উপজেলার কাজী কান্দি গ্রামের হানিফ খন্দকারের বাড়ির আবুল কাশেমের ছেলে। তারা স্বপরিবারের সেনবাগ উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের আজিজপুর গ্রামের আজিজ মোল্লার বাড়িতে ভাড়া বাসায় বসবাস করেন।

স্থানীয়রা সূত্রে জানা যায়, সোহেলের বোন নার্গিস আকতারের ৫হাজার টাকা খোয়া যায়। ওই ঘটনায় শনিবার সকালে নার্গিস সোহেলকে চোর হিসেবে সন্দেহ করে বকাঝকা করে। এতে সোহেল চোরের অপবাদ সইতে না পেরে সকাল ১০টার দিকে বোনের ভাড়া করা কক্ষে গিয়ে গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

পরে খবর পেয়ে সেনবাগ থানার এসআই বিকাশের নেতৃত্বে একদল পুলিশ দুপুর ১২টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট সম্পন্ন শেষে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

নিহতের বোন শাহানাজ আক্তার নিপু জানায় তার ভাই সেনবাগের বিভিন্নস্থানে ভ্যান গাড়ি দিয়ে আনারস বিক্রি করেতো। তারা স্বপরিবারের সেনবাগের ছরিম মুন্সির হাট ও আজিজপুর গ্রামে ভাড়া বাসায় থাকেন।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় থানায় প্রাথমিক ভাবে অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে পরবর্তীতে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Previous articleমধ্যনগরে কাউহানি হতে বংশীকুন্ডা রাস্তায় যাতায়াতে ভোগান্তির শেষ কবে?
Next articleকালাইয়ে কিডনি বেচাকেনা চক্রের ৭ দালাল গ্রেফতার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।