রবিবার, মে ২৬, ২০২৪
Homeসারাবাংলারাজশাহীতে স্ত্রীকে ভাগিয়ে বিয়ে করার জেরে ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যা

রাজশাহীতে স্ত্রীকে ভাগিয়ে বিয়ে করার জেরে ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যা

মাসুদ রানা রাব্বানী: রাজশাহী নগরীতে অবৈধ সর্ম্পক গড়ে তুলে স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে বিয়ে করার জের ধরে ছুরিকাঘাতে এক যুবককে হত্যা করা হয়েছে।

রোববার (১৯ জুন) সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে মহানগরীর শাহমখদুম থানাধীন নওপাড়া (মাস্টাপাড়া) এলাকায় প্রক্যাশেই এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত যুবকের নাম আব্দর রহমান মকুল (৪৫)। তিনি পবা উপজেলার বড়গাছি গ্রামের আব্দুল গাফফারের ছেলে। হত্যাকান্ডের পরপরই জড়িত থাকার অভিযোগে নওহাটার বাসিন্দা টিটন আলী (৪০) নামের এক যুবককে আটক করেছে শাহমখদুম থানা পুলিশ।

স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রোববার (১৯ জুন) সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে নিহত মুকুল তার ভাড়া বাসা থেকে বের হন। আগে থেকেই সেখানে অপেক্ষা করছিলো টিটন নামের ওই যুবক। তাকে দেখামাত্র ছুরিকাঘাত করে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় মুকুলকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করে। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে শাহমখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান বলেন, নিহত যুবক মুকুল শাহমুখদুম থানার মাস্টারপাড়া এলাকায় আনার নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। ভাড়া বাড়ির পাশেই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। হত্যা করে পালানোর সময় শাহমখদুম থানার টহল টিম ধাওয়া দিয়ে অভিযুক্ত টিটনকে আটক করে। তবে টিটন মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ায় তাকে পুলিশ হেফাজতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে (ওসি) মেহেদী হাসান আরও বলেন, কিছুদিন আগে নিহত মুকুল অভিযুক্ত টিটনের স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে বিয়ে করেন। এই রাগ-ক্ষোভে টিটন তাকে ছুরিকাঘাত করে বলে জানা গেছে। নিহত মুকুলের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। হত্যাকান্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি। তবে আইনগত প্রক্রিয়া চলমান।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments