প্রদীপ অধিকারী: গত দু’দিন ধরে পাঁচবিবি পৌরসভার নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র বাতিল হওয়া প্রার্থী সাবেকুন নাহার শিখা ও তার সমর্থক নার্গিস বেগম পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেছেন। একজন বলেছেন তার সমর্থককে অপহরণ করা হয়েছে। সমর্থক বলছে তাকে অপহরণ করা হয়নি।

গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পাঁচবিবি পৌরসভার মেয়র প্রার্থী সাবেকুন নাহার তার দানেজপুরস্থ অফিসে সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, নির্বাচনে অংশ গ্রহনের জন্য প্রার্থীদের কাগজপত্র যাচাই বাছাইয়ের সময় আমার এক’শ জনের সাধারণ ভোটারের সমর্থন সম্বলিত স্বাক্ষরের তালিকায় দুই সমর্থকের স্ব্ধাসঢ়;ক্ষর ভূযা বলে আমার মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়। পরে আমি আটাপুর ইউপি ভবনে সমর্থক নার্গিস বেগমসহ অবস্থান করি। এই সময় আমার প্রতিপক্ষ মেয়র প্রার্থীর ৭জন লোকজন উক্ত নার্গিসকে ভয়ভীতি দেখিয়ে উঠিয়ে নিয়ে যায়। আমি পাঁচবিবি থানায় একটি সাধারণ ডায়রী করেছি। তিনি আরো বলেন আমার সমর্থক নার্গিসকে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে উল্টো তাকে দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার পাঁয়তারা করা হচ্ছে।

অপরদিকে আজ শুক্রবার বিকেলে পাঁচবিবি শহরের দমদমা এলাকায় পৌরসভার মনোনয়ন পত্র বাছাইয়ে বাতিল হওয়া মেয়র প্রার্থী সাবেকুন নাহার শিখার কথিত সাধারণ সমর্থক নার্গিস বেগম সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন মেয়র প্রার্থী সাবেকুন তার তালিকায় আমার স্বাক্ষর দেখিয়েছেন কিন্তু আমি কোন স্বাক্ষর দেয়নি। অপহরণের ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন।

নার্গিস বেগম আরো বলেন, ঐ প্রতারক মহিলা যে অন্যের স্বাক্ষর জাল করে নির্বাচন করতে চায়, সে আমার পরিবারের নামে মিথ্যা অভিযোগ করায় আমি তার সুষ্টু বিচার চাই।

Previous articleসাপাহারে সড়ক দুর্ঘটনায় এসএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু
Next articleসাংবাদিক সোহেল তালুকদারের সুস্থতা কামনায় ভূঞাপুরে দোয়া মাহফিল
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।