মিজানুর রহমান বাদল: মানিকগঞ্জের সিংগাইরে গলায় ফাঁসি নিয়ে স্বর্ণ কারিগর সঞ্জিত চন্দ্র বর্মনের (২৮) মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে পরিবারটি কৌশলে বাড়িতে নিয়ে দাহ করেছে বলে জানাগেছে। এদিকে মৃত সঞ্জিতকে সিংগাইর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত নিশ্চিত হয়েও পুলিশের উপস্থিতিতে ঢাকায় রেফার্ড করেছেন।

সঞ্জিতের পরিবার কৌশলে ময়নাতদন্ত ছাড়াই কুমিল্লায় নিয়ে নিজ বাড়িতে দাহ করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে, রবিবার (৩ জুলাই) দিবাগত রাতে উপজেলার চারিগ্রাম এলাকার উত্তর চারিগ্রাম স্বর্ণের মার্কেটের তৃতীয় তলায় মান্নান শিকদারের ভাড়াবাসায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সঞ্জিতের বাড়ী কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মনপাড়া উপজেলার বাগড়া গ্রামের অতুল চন্দ্র বর্মনের ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, দীঘদিন যাবৎ সঞ্জিত উপজেলার চারিগ্রাম বাজারের জুয়েলারী মার্কেটে স্বর্ণ কারিকগর হিসেবে দোকান ভাড়া নিয়ে কাজ করে আসছিল। সেই সুবাদে ওই মার্কেটের তয় তলা পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন। এরই মধ্যে গত রবিবার দিবাগত রাত ১০ টায় প্রতিদিনের মত বাসায় ফিরেন। বাসায় গিয়ে স্ত্রী গীতা রানী বর্মনের (২২) সাথে ঝগড়া করে পাশের রুমে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত ১২ টার দিকে স্ত্রী দরজা ধাক্কা দিলে কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে জানালা দিয়ে দেখতে পায় গলায় ওড়না পেচিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলতে দেখে ডাক- চিৎকার শুরু করে। এ সময় তার ভাই দরজা ভেঙ্গে সঞ্জিতকে উদ্ধার করে সিংগাইর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রাবব্বাব উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার্ড করেন।

এ ব্যাপার ডা. রাবব্বাব সঞ্জিতের মৃত্যুর বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, তার পরিবারের অনুরোধে তাকে রেফার্ড করা হয়েছে।

সিংগাইর থানার এসআই মনোহর আলী বলেন, এ ঘটনায় আমি খবর হাসপাতালে গিয়েছিলাম চিকিৎসক রেফার্ড করায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

Previous articleগাজীপুরে সড়কে গাছ ফেলে ডাকাতি, আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৯ সদস্য গ্রেফতার
Next articleভয়াবহ লোডশেডিংয়ের কবলে রাজশাহীর মানুষ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।