ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: বরের বয়স ২৭, আর কনের ১৫। এক ছেলের সঙ্গে মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক থাকায় পরিবার অন্যত্র বিয়ের আয়োজন করে মেয়ের পরিবার। কিন্তু বরপক্ষ বিয়েবাড়িতে আসার আগেই উপস্থিত হয় পুলিশ। পরে ১৮ বছরের আগেই বিয়ে দেয়ার আয়োজন করার মেয়েটির পরিবারকে সর্তক করে পুলিশ। বন্ধ করা হয় বিয়ের সব আয়োজন।

ঘটনাটি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার দেবীনগর ইউনিয়নের বিশ্বাসটোলা গ্রামের। বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) রাতে রবিউল নামের এক ছেলের সাথে বিয়ের আয়োজন করেছিল মেয়ের বাবা হুমায়ুন কবির টুটুল।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিয়াউর রহমান মুঠোফোনে বলেন, মেয়েটির একটি ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু তাতে পরিবার রাজি ছিল না। এজন্য অন্যখানে বিয়ে দিলে আর কারও সঙ্গে মিশবে না, এমন ধারণা থেকেই বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল।

তিনি আরও বলেন, ছেলেপক্ষ কনের বাড়িতে আসার আগেই আমরা হাজির হয়। মেয়েটার বয়স কেবল ১৫ বছর, বরের প্রায় ২৭। তবে মেয়ের বাবা কথা দিয়েছেন, তিনি বাল্যবিয়ে দেবেন না। তার এই আশ্বাসেই শুধুমাত্র সর্তক করে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তবে তিনি প্রতিশ্রুতি রক্ষা না করলে পরবর্তীতে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দেবিনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান মুঠোফোনে জানান, মাত্র ১৫ বছর বয়সের একটা মেয়ের বিয়ের আয়োজনে পুলিশ উপস্থিত হয়ে বিয়ে বন্ধ করেছে। তবে পুলিশ চলে যাওয়ার পর আবারও বিয়ের আয়োজন করছে কি না তা খোঁজ-খবর রাখা হবে।

Previous articleকলাপাড়ায় ক্ষতিগ্রস্থ্য পরিবারের মানববন্ধন
Next articleনোয়াখালীতে প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।