বাংলাদেশ প্রতিবেদক: চারটি বিয়ে করেও সাধ মিটেনি তার। এবার পঞ্চম স্ত্রী হিসেবে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে নিয়ে উধাও হয়েছে যুবক।

ঘটনাটি ঘটেছে ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার কোদালিয়া শহীদনগর ইউনিয়নের দেলবাড়ীয়া গ্রামে।

জানা গেছে, ওই গ্রামের সামছুল হক তালুকদারের ছেলে সেলিম তালুকদার (৩৫) কাতার প্রবাসী এক ব্যক্তির স্ত্রী রিতা মনি রিয়া ওরফে রিক্তাকে (২৭) নিয়ে প্রেমের টানে পালিয়ে গেছেন।

রিক্তা কোদালিয়া শহীদনগর ইউনিয়নের ছোটপাইককান্দী গ্রামের নান্নু মোল্লার মেয়ে এবং দেলবাড়ীয়া গ্রামের তোফা মাতুব্বরের ছেলে কাতার প্রবাসী রাসেল মাতুব্বরের (৩২) স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, প্রেমের সম্পর্ক গড়ে রাসেল আট বছর আগে রিক্তাকে বিয়ে করেন। বর্তমানে তাদের সংসারে সাত বছর বয়সী এক ছেলে সন্তান রয়েছে। রাসেল অর্থ উপার্জন করতে প্রায় পাঁচ বছর আগে কাতারে চলে যান। রাসেলের স্ত্রী রিক্তা চলতি বছরে তার ছেলেকে নগরকান্দা সদরের একটি স্কুলে ভর্তি করেন। এর পর থেকে তিনি তার ছেলেকে নিয়ে স্কুলে আসা যাওয়া করতেন। এরই মধ্যে সেলিম তালুকদারের সাথে রিক্তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

গত সোমবার (১ আগস্ট) সকালে রিক্তা তার ছেলেকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি থেকে বের হন। ছেলেকে ছোটপাইককান্দী গ্রামে তার বাবার বাড়িতে রেখে রিক্তা প্রেমিক সেলিম তালুকদারের হাত ধরে উধাও হন।

রিক্তার বাবা নান্নু মোল্লা বলেন, ‘সেলিম তালুকদার ফোন করে আমাদের জানিয়েছেন, তিনি আমার মেয়েকে বিয়ে করে ঢাকায় আছেন।’

এ ব্যাপারে রাসেল মাতুব্বরের বাবা তোফা মাতুব্বর বলেন, ‘আমার ছেলের স্ত্রী
রিক্তা পরকীয়া সম্পর্কে জড়িত, তা আমরা বুঝতে পেরেছিলাম। কিন্তু সে আমাদের কোনো কথাই শুনত না। গত সোমবার সকালে নগদ টাকা ও গহনা নিয়ে আমার বাড়ি থেকে সে পালিয়ে যায়। পরে জানতে পারি সেলিম তালুকদারের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক আছে। তার সাথে এখন ঢাকায় আছে বলে জানতে পেরেছি। শুনেছি, সেলিম তালুকদার এর আগে আরো চারটি বিয়ে করেছে।’

Previous articleকলাপাড়ায় মিথ্যা অপবাদে যুবককে ছুরিকাঘাত, পিতাকেও নির্যাতন
Next articleআন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম কয়েক মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।