মাসুদ রানা রাব্বানী: অব্যাহত লোকসানের মুখে করোনার শুরু থেকে এ পর্যন্ত রাজশাহী জেলার প্রায় ২৫ হাজার মুরগির খামার বন্ধ হয়ে গেছে। বর্তমানে জেলায় যে প্রায় ২০ হাজার খামার অবশিষ্ট আছে, সেগুলোও বন্ধের পথে।

এই পরিস্থিতিতে অবিলম্বে সরকারিভাবে মুরগি ও ডিমের দাম নির্ধারণ করে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে রাজশাহী পোল্ট্রি ফার্মার ঐক্য পরিষদ।

শনিবার এই দাবিতে রাজশাহী মহানগরীর একটি রেস্তোরাঁয় সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন খামারীরা। সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের নেতারা বলেন, উৎপাদন খরচের চেয়ে বর্তমানে বাজারে বিক্রি করতে গিয়ে প্রতিটি সাদা ডিমে এক টাকা ৯০ পয়সা এবং সোনালি ডিমে দুই টাকা করে লোকসান দিতে হচ্ছে খামারিদের। একইভাবে তাদের লোকসান দিতে হচ্ছে মুরগিতেও।

সংবাদ সম্মেলন থেকে উৎপাদন খরচের চেয়ে প্রতিটি ডিমে ৬০ থেকে ৮০ পয়সা এবং প্রতি কেজি মুরগিতে ২০ থেকে ২৫ টাকা লাভ নির্ধারণ করে ডিম ও মুরগির দাম নির্ধারণ করে দিতে সরকারের প্রতি দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে রাজশাহী পোল্ট্রি ফার্মার ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক হাসিবুল আলম শাওন এই বক্তব্য তুলে ধরেন। এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে রাজশাহী পোল্ট্রি ফার্মার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ইসমাইল হোসেন ও পোল্ট্রি ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ আলীও সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন।

Previous articleএজেন্টদের ভোটকক্ষের বারান্দায় বসানোর দাবি চেয়ারম্যান প্রার্থীর
Next articleচা শ্রমিকদের ঘর করে দেয়ার আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।