সোমবার, জুন ২৪, ২০২৪
Homeসারাবাংলাচান্দিনায় বন্ধ হচ্ছেনা অবৈধভাবে বালু-মাটি উত্তোলন

চান্দিনায় বন্ধ হচ্ছেনা অবৈধভাবে বালু-মাটি উত্তোলন

সোহেল রানা: কুমিল্লার চান্দিনায় বন্ধ হচ্ছে না ফসলি জমি থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন। সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্প উন্নয়ন, রাস্তা-ঘাট, বিদ্যালয়ের মাঠ, বসতঘর বাড়ি তৈরির জন্য জমি ও পুকুর ভরাটের নামে অবাদে কৃষি জমি ও পুকুর থেকে ড্রেজারের মাধ্যমে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন করায় প্রতি বছরই ভাঙনের মুখে পড়ছে ফসলি জমি, রাস্তা-ঘাট।

উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ইতোমধ্যে বিলীন হয়ে গেছে শত শত বিঘা ফসলি জমি। ফসলি জমিতে থামানো যাচ্ছে না বালু সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্য। বালুখেকোরা আইনের তোয়াক্কা না করে ড্রেজারের মাধ্যমে তলদেশ দিয়ে পুকুর ও জমি থেকে মাটি নিয়ে যাচ্ছেন। এর ফলে হুমকিতে রয়েছে শতাধিক সরকারি-বেসরকারি স্থাপনা ও আবাদিজমি, বসতঘর, ফসলিজমি, রাস্তা-ঘাট। মাঝেমধ্যে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান পরিচালোনা করা হলেও তবু বন্ধ হচ্ছেনা বালু উত্তোলন। অপরাধীরাও থাকছে ধরাছোঁয়ার বাইরে।

বালু মহাল ঘোষণা না হলেও সরকারকে প্রতি মাসে কয়েক লাখ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া হচ্ছে অবৈধ বালু উত্তোলন করে। বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন অনুযায়ী সেতু, কালভার্ট, ড্যাম, ব্যারেজ, বাঁধ, সড়ক, মহাসড়ক, বনসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ও বেসরকারি স্থাপনা অথবা আবাসিক এলাকার মধ্যে কৃষি জমি থেকে বালু বা মাটি উত্তোলন নিষিদ্ধ থাকলেও এ আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ক্ষমতাসীন দলের কয়েকজন স্থানীয় নেতাকর্মী ও জনপ্রতিনিধিদের ছত্রছায়ায় প্রভাবশালীরা একাধিক ড্রেজার মেশিন বসিয়ে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে। জনসচেতন মহল বলেন এই চক্রের সাথে জড়িত রয়েছে বাবু, মিজান, আনোয়ার, সুমন, খোকন, ইব্রাহিম, জামাল, আল-আমিন, শরিফ, কামাল, তাজু, রুবেল সহ আরো অনেকেই। তবে উপজেলার মাধাইয়া, বাতাঘাসী ও শুহিলপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় সব চেয়ে বেশি বালু-মাটি উত্তোলন করে যাচ্ছে। প্রশাসন কি কারণে তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না তা জানানেই। দ্রুত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা প্রশাসনের কাছে ভুক্তভোগী ও এলাকার মানুষ জোর দাবি জানিয়ে বলেন, অবৈধ ড্রেজারগুলোর বিরুদ্ধে অভিযানের সময় এগুলো জব্দ করা সহ ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে জেল-জরিমানাসহ এই অবৈধ বালু উত্তোলন সম্পূর্ণ বন্ধ করা হোক।

এ বিষয়ে চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) তাপশ সীল আজকের বাংলাদেশ কে জানান, কয়েক দিন পূর্বে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে অবৈধ ড্রেজার বন্ধ করা হয়েছে। তাছাড়া অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথেই ব্যবস্থা নিয়ে থাকি। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments