প্রদীপ অধিকারী: পাঁচবিবির চাষিরা বোরো আবাদে নেমেছেন। বীজতলা থেকে চারা তুলে জমিতে রোপন করছেন। কিন্তু সংকটে পড়েছেন কৃষি মজুর নিয়ে। ধান- চালের বাজার দর ভালো থাকায় এ বছর বোরো চাষে আগ্রহ বেড়েছে চাষীদের। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে আশানুরূপ ফসল ঘরে তুলতে পারবেন বলে আশাবাদী চাষিরা।

উপজেলার কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর উপজেলায় ২০ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো চাষে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। তীব্র, শীত, ঘন কুয়াশা ও শৈত্য প্রবাহের কারণে বোরো আবাদ প্রায় ২০ দিন পিছিয়ে গেছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলায় পৌরসহ ৮টি (বালিঘাটা ইউনিয়ন সহ বাগজানা, ধরঞ্জী, আয়মারসুলপুর, আটাপুর, মোহাম্মদপুর, কুসুম্বা, আওলাই) ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে পুরোদমে বোরোর আবাদ শুরু করেছেন চাষীরা। নারী-পুরুষ ও ক্ষেত মজুরের এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। বীরনগর গ্রামের বোরো চাষী ইব্রাহিম মাস্টার জানান, শীত-কুয়াশা ও শৈত্য প্রবাহর কারণে বোরো আবাদ প্রায় ২০ দিন পিছিয়ে গেছে। শীত কমে যাওয়ায় এখন চাষীরা বোরো আবাদের মাঠে নেমেছেন, কিন্তু সমস্যা হচ্ছে কৃষি মজুর নিয়ে। একই সাথে ক্ষেত থেকে আলু তোলা, সরিষা তোলা ও বোরো ধান চাষ একই সাথে হওয়ায় পাঁচবিবি উপজেলায় তীব্র শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। চলতি বছর কৃষি শ্রমিকের মূল্য বেশি। তারপরেও ক্ষেতে মজুর পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে কিছুটা শঙ্কার মধ্যে পড়েছেন চাষীরা।

সুলতানপুর গ্রামের বোরো চাষী বাদশা মিয়া, এমতাজ আলী, হামিদুল ইসলাম জানান, বিগত সময়ে ধানের চাষ করে তাদের লোকশান গুনতে হয়েছে কিন্তু এবছর ধানের বাজার ভালো থাকায় বোরো চাষের প্রতি আগ্রহ বেড়েছে তাদের। উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ লুৎফর রহমান জানান, বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা পূরণের লক্ষ্যে আমরা মাঠে গিয়ে কৃষকদের বিভিন্নভাবে পরামর্শ ও সহযোগীতা করছি।

আরও পড়ুন  ধর্ষণের ভিডিও ভাইরালের ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে ফাঁদে ফেলে একাধিকবার ধর্ষণ
Previous articleচোরের পছন্দ রাজশাহীর অভিজাত পদ্মা আবাসিক এলাকা
Next articleপাঁচবিবিতে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তার চেক প্রদান
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।