বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২৪
Homeসারাবাংলাশাহমখদুমে ধরা ছোয়ার বাইরে কিশোর গ্যাং লিডার সিহাব

শাহমখদুমে ধরা ছোয়ার বাইরে কিশোর গ্যাং লিডার সিহাব

মাসুদ রানা রাব্বানী: রাজশাহী মহানগরীতে কিশোর গ্যাংয়ের লিডার সিহাব আজও ধরা ছোয়ার বাইরে। এ নিয়ে স্থানীয়দেরে মধ্যে ব্যপক গুঞ্জন ও চাপা ক্ষেভের সৃষ্টি হয়েছে। পলাতক কিশোর গ্যাংয়ের লিডার সিহাব, সে মহানগরীর শাহমখদুম থানার নওদাপাড়া পোষ্টাল একাডেমির পেছনের বসতির মোঃ মনিরুলের ছেলে।

জানা গেছে, গত ২৭ অক্টোবর ২০২৩ বিকাল ৬টা দিকে মহানগরীর শাহমখদুম থানার পবা নতুনপাড়া (গাং পাড়া) এলাকায় আরাফাত নামের এক স্কুল ছাত্রকে ১৫/২০ সঙ্গী নিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে আরডিএ বনলতা আবাসিকের পেছনে নিয়ে যায়। সেখানে মাথা-সহ পুরো শরীরে জিআইপাইপ ও হাতুড়ি দ্বারা আঘাত করে। সেই সাথে চোখে চাকু মারে, পিঠে চাপাতি ও হাসুয়া দ্বারা কোপায় এবং মাথায় হাতুড়ি দ্বারা আঘাত করে। ওই সময় টানা ২ঘন্টা নির্যাতের ফলে আরাফাত মাটিতে লুটিয়ে পড়লে কিশোর গ্যাংয়ের লিডার সিহাব ও তার সঙ্গীরা ওই স্থানে অস্ত্র হাতে উল্লাস করে এবং ভিডিও ধারন করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে ব্যপক ভাইরাল হয়। পরে রামেকে’র আইসিইউ’তে দীর্ঘ ১৫দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর তার জ্ঞান ফেরে স্কুল ছাত্র আরাফাতের। বর্তমানে আরাফাত মানুষিক রোগী বলে জানিয়েছেন, তার বড় ভাই মোঃ হুমায়ুন কবির রনি। ওই ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে মহানগরীর শাহমখদুম থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। এর আগে (১০ মার্চ ২০২৩) শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর কবর জিয়ারত করে বাড়ী ফিরছিলেন কিশোর আবির (১৬)। ওইদিন কিশোর গ্যাং লিডার সিহাব ও তার সহযোগীরা আবিরের বাড়ির গেইটে পেছন থেকে হামলা করে তার মাথা-সহ পুরো মুখমন্ডলে আঘাত করে ক্ষত বিক্ষত করে গুরুতর আহত করে। পরে তাকে রামেকে ভর্তি করা হয়। জ্ঞান ফেরে ১দিন পরে। সেই ঘটনার ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হয়।

একাধিক স্থানীয়দের দাবি, শাহমখদুম থানার গাংপাড়া এলাকায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পবা নতুনপাড়া (গাংপাড়া) বসতি’তে ঢুকে বাড়ি ঘরে ভাংচুর হামলা চালায় গ্যাং লিডার সিহাব ও তার সহযোগীরা। এছাড়া একই ধরনের একাধিক ঘটনা তার দ্বার সংঘটিত হয়েছে ওই এলাকায়। স্থানীয়রা আরও বলেন, সিহাব ও তার সহযোগীদের অস্ত্র-হাতে নাচানাচির ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরে পুলিশের টনক নড়ে। আরএমপি পুলিশ কমিশনার মহাদয়ের নির্দেশে পুরো শাহমখদুম থানার অঞ্চলে ব্যপক অভিযান চালায় শাহমখদুম থানা পুলিশ ও মহানগর ডিবি পুলিশ। অভিযানে কিশোর গ্যাংয়ের ৭জন সদস্যকে আটক করা হয়। কিন্তু কিশোর গ্যাংয়ের মূল হোতা সিহাব, ফাইসাল, বিজয়, রহিদুল আজও ধরা ছোয়ার বাইরে। এ ব্যপারে জানতে চাইলে শাহমখদুম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ইসমাইল হোসেন জানান, কিশোর গ্যাং লিডার সিহাব-সহ তার অন্যন্য সহযোগীদের গ্রেফতারে মাঠে কাজ করছে পুলিশ। ভুক্তভোগীরা এলাকায় তাদের দেখতে পেলে পুলিশে খবর দিলে সাথে সাথে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান ওসি।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments