শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
Homeসারাবাংলাতীব্র গরম ও লোডশেডিংয়ে বিপর্যস্ত স্নাতক ও সমমান পরীক্ষার্থী

তীব্র গরম ও লোডশেডিংয়ে বিপর্যস্ত স্নাতক ও সমমান পরীক্ষার্থী

স্বপন কুমার কুন্ডু: তীব্র ও অতি তীব্র তাপপ্রবাহের মধ্যে ঈশ্বরদীতে ঘন ঘন লোডশেডিংয়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে স্বাভাবিক জনজীবন। সকাল, দুপুর, বিকেল এমনকি মধ্যরাতে বার বার হচ্ছে লোডশেডিং। নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে মানুষ। দিনে-রাতে গড়ে ছয় থেকে আট ঘণ্টা করে লোডশেডিং হচ্ছে। এরইমধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে স্নাতক (পাশ) ও অনার্স তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষা। লোডসেডিং এর কারণে পরীক্ষার্থীরা একদিকে যেমন প্রস্তুতি নিতে পারছে না, অপরদিকে পরীক্ষা কেন্দ্রেও গরমে নাজেহাল হতে হচ্ছে।

জানা গেছে, ঈশ্বরদী সরকারি ও মহিলা কলেজ কেন্দ্রে রৌদ্রতপ্ত দুপুর একটা অনার্স ও দেড়টা থেকে স্নাতক পাশ কোর্সের পরীক্ষা শুরু হয়ে বিকেল সাড়ে চারটা ও পাঁচটা পর্যন্ত তীব্র গরমের মধ্যে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে লোডসেডিং এর কারণে প্রচন্ড গরমের মধ্যে শিক্ষার্থীদের সীমাহীন কষ্টে পরীক্ষা দিচ্ছে। রবিবার (২৮ এপ্রিল) ওই দুটি কেন্দ্রে দুপুর একটা থেকে তৃতীয় বর্ষের অনার্স পরীক্ষা শুরু হয়। পরীক্ষা শুরুর সাত মিনিটের মাথায় অর্থাৎ দুপুর ১.০৭ মিনিটে স্ক্যাডা অপারেশনে বিদ্যুত চলে যায়। ১ ঘন্টা ৪৫ মিনিট পর ২. ৫২ মিনিটে বিদ্যুত আসে। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ফের ৪.০৫ মিনিটে ফের লোডসেডিং শুরু হয়। ২৫ মিনিট বন্ধ থাকার পর আবার আসে। আবার পরীক্ষা শেষ হওয়ার পূর্ব মূহুর্তে লোডসেডিং এর ঘটনা ঘটে।

সরকারি কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্রের কক্ষ পরিদর্শক নাম প্রকাশ না করে বলেন, তীব্র গরমের মধ্যে সীমাহীন চরম দূর্ভোগে পরে পরীক্ষার্থীরা। আমাদের কষ্ট হলেও আমরা হাাঁটাচলা করতে পেরেছি। শুনেছি লোডসেডিং স্থানীয়ভাবে হচ্ছে না। স্থানীয়ভাবে হলে কর্তৃপক্ষ পরীক্ষার সময়ে সাধারণত: কেন্দ্র এলাকায় লোডসেডিং দেয় না। স্ক্যাডা অপারেশনে লোডসেডিং যারা দিচ্ছে, তাদের পরীক্ষার বিষয়টি মাথায় রাখা উটিত।

অন্যান্য বছরের চেয়ে চলতি বছর গরমের তীব্রতা ক্রমশ বাড়ছে। গত ১৯ এপ্রিল থেকে ঈশ্বরদীর তাপমাত্রা ৪১ ডিগ্রীর ওপরে বিরাজ করছে। এরআগে ২১ এপ্রিল ৪২ ডিগ্রী এবং ২৬ এপ্রিল ৪২ দশমিক ৪ ডিগ্রীতে ওঠে। প্রচন্ড গরম আর অসহনীয় তাপে যেন শরীর পুড়ে যাবার অবস্থা প্রায়। ফলে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন মানুষ। বিশেষ করে শিশু, নারী এবং বৃদ্ধরা তীব্র গরমে সীমাহীন কষ্ট পাচ্ছেন। বাতাসের আদ্র্রতা কমে বাতাস শুষ্ক হয়ে যাওয়ার ফলে সূর্যের তাপ শরীর থেকে পানি শুষে নিচ্ছে। ফলে ত্বক জ্বালাপোড়া করছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments