বাংলাদেশ প্রতিবেদক: আগামী অর্থবছরের (২০২১-২২) বাজেটেও কালো টাকা সাদা করার সুযোগ রাখছে সরকার। তবে আগামী বছর কোন কোন খাতে কালো টাকা সাদার করার সুযোগ থাকছে তা জানা যাবে জুনে সংসদে উত্থাপিত ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে। এমনটা জানালেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

দেশের অর্থনীতিতে যত দিন অপ্রদর্শিত আয় থাকবে, ততদিন পর্যন্ত কালো টাকা সাদা করার এই সুযোগ বিদ্যমান থাকবে বলেও জানান মন্ত্রী।

বুধবার (১৯ মে) ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‌‘আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটেও সরকার কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেবে। কালো টাকা সাদা করার বিদ্যমান সুযোগটি, যতদিন দেশের অর্থনীতিতে অপ্রদর্শিত অর্থ থাকবে, ততদিন দেওয়া হবে।’

এর আগে গত ২৪ মার্চ ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘বাজেটে যে জায়গাগুলো যেভাবে আছে সেভাবে থাকবে কিনা, তা এই মুহূর্তে বলা যাবে না। জুনে সংসদে বাজেট দেওয়ার সময় জানা যাবে।’

পুঁজিবাজার, ব্যাংক আমানতে, নগদ টাকা, ফ্লাট কেনাসহ সব ক্ষেত্রে বিনা প্রশ্নে ১০ শতাংশ কর দিয়ে সবশেষ বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেয়া হয়।

Previous articleইসরায়েলকে সমর্থন দিলেই ১০ বছরের কারাদণ্ডের খবর পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমে
Next articleরোজিনা ইসলাম যেন ন্যায়বিচার পান তা দেখছে সরকার: তথ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।