রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪
Homeঅর্থনীতিবাজেটে বাড়তে পারে যেসব পণ্যের দাম

বাজেটে বাড়তে পারে যেসব পণ্যের দাম

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: আগামী ২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে কিছু পণ্যের শুল্ক ও কর বাড়ানো হয়েছে। ফলে এসব পণ্যের দাম বাড়তে পারে। বাজেটে যেসব শুল্ককর প্রস্তাব করা হয়, সাধারণত তা তাৎক্ষণিকভাবে কার্যকর হয়।

দেশি ফ্রিজ-এসি

ফ্রিজের চাহিদার ৯০ ভাগই দেশে উৎপাদন হয়। দেশীয় ব্র্যান্ডগুলো কোম্পানির পাশাপাশি বিদেশি কোম্পানিও বাংলাদেশে ফ্রিজ উৎপাদন করছে। দেশে উৎপাদিত ফ্রিজে মূল্য সংযোজন কর (মূসক/ভ্যাট) আড়াই শতাংশ বেড়ে সাড়ে ৭ শতাংশ হয়েছে। দেশে ফ্রিজ ও শীতাতপ নিয়ন্ত্রণযন্ত্র (এসি) উৎপাদনে ব্যবহৃত বিদেশি কম্প্রেসর ও অন্যান্য উপকরণের মূসক ও শুল্ক বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। দেশে তৈরি এসির ওপর সাড়ে সাত শতাংশ ভ্যাট আরোপ করা হয়েছে। ফলে ফ্রিজ ও এসির দাম বাড়তে পারে।

সিগারেট

প্রতিবছর বাজেটে বিড়ি-সিগারেট ও তামাকজাতীয় পণ্যের ওপর শুল্ককর বাড়ানো হয়। এবারও তা অব্যাহত রয়েছে। বাজেটে সিগারেটের উৎপাদন পর্যায়ে সম্পূরক শুল্ক ও মূল্যস্তর বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। এরমধ্যে তিন স্তরের সিগারেটে সম্পূরক শুল্ক হার ৬৫ থেকে বাড়িয়ে ৬৬ শতাংশ করা হয়েছে। এছাড়া বিড়ি-সিগারেট পেপারের স্থানীয় উৎপাদন পর্যায়ে মূসক সাড়ে সাত থেকে বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হয়েছে। ফলে সিগারেট ও বিড়ির দাম বাড়তে পারে।

পান খাওয়ায় খরচ বাড়বে

যারা নিয়মিত পান-জর্দা খান তাদের জন্য দু:সংবাদ আছে বাজেটে। তাদের পান খাওয়ার খরচ বাড়বে। বাজেটে প্রতি ১০ গ্রাম জর্দার সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ৪৮ টাকা ও একই পরিমাণ গুলের মূল্য ২৫ টাকা নির্ধারণের প্রস্তাব করা হয়েছে।

বিদেশি পানির ফিল্টার

ওয়াসার পানি সরাসরি পানযোগ্য নয়। তাই সাধারণত পানি ফুটিয়ে পান করা হয়। না ফুটিয়ে অনেকে বাসায় পানি পরিশোধন যন্ত্র বা ফিল্টার ব্যবহার করেন। দেশীয় শিল্পকে সুরক্ষা দিতে বিদেশি পানির ফিল্টারের আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হয়েছে।

মোটরসাইকেল

২৫০ সিসির (ইঞ্জিনক্ষমতা) বেশি ক্ষমতাসম্পন্ন মোটরসাইকেলের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ আমদানির ক্ষেত্রে আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ করা হয়েছে। একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কিছু পণ্যের বিপরীতে বিদ্যমান আমদানি শুল্ক ৫ থেকে বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হয়েছে। এতে উচ্চ সিসির মোটরসাইকেলের দাম বেশি বাড়তে পারে।

পানীয়

কার্বোনেটেড বেভারেজ বা কোমল পানীয়ের মতো মিষ্টি পানীয় কোম্পানির ওপর লেনদেন কর শূন্য দশমিক ৬ থেকে বাড়িয়ে ৩ শতাংশ করা হয়েছে। পাশাপাশি কোমল পানীয়ের ওপর সম্পূরক শুল্ক ৫ শতাংশ বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩০ শতাংশ। অন্যান্য পানীয়ের ওপর বাড়ানো হয়েছে শুল্ক। ফলে মিষ্টি পানীয়ের দাম বাড়তে পারে।

বৈদ্যুতিক বাতি

বৈদ্যুতিক বাতির মধ্যে এলইডি ও এনার্জি সেভিং বাতির উৎপাদনের উপকরণ আমদানিতে শুল্ক ১০ শতাংশ আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে বাজেটে। পাশাপাশি বাড়ানো হয়েছে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী বাতির ভ্যাট। ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ১৫ শতাংশ। একই হারে বেড়েছে টিউবলাইটের ভ্যাট। এতে বাতির দাম বাড়তে পারে।

চিকিৎসা ব্যয়

এতদিন বিশেষায়িত হাসপাতাল বিশেষ শুল্কছাড়ে চিকিৎসাযন্ত্র ও সরঞ্জাম আমদানির সুযোগ পেত। এবারের বাজেটে ২০০টিরও বেশি চিকিৎসাযন্ত্র ও সরঞ্জাম আমদানির ক্ষেত্রে শুল্ক হার ১ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১০ শতাংশ করা হতে পারে। এতে হাসপাতালগুলো চিকিৎসা সেবা মূল্য বাড়িয়ে দিতে পারে।

মুঠোফোনে কথায় খরচ বাড়ল

মোবাইলে কথা বলার খরচ আরও বাড়বে। বর্তমানে একজন ভোক্তা মোবাইলে ১০০ টাকা রিচার্জ করলে ৭৩ টাকার কথা বলতে পারেন। বাকি ২৭ টাকা ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক হিসেবে কেটে নেয় মোবাইল অপারেটরগুলো। প্রস্তাবিত বাজেটে মোবাইল সেবার ৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক বাড়ানো হলে ভোক্তা ৬৯ দশমিক ৩৫ টাকার কথা বলতে পারবেন।

ইট

প্রস্তাবিত বাজেটে নির্মাণকাজে ব্যবহৃত ইটের ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট করের পরিমাণ ৫ থেকে ১০ শতাংশ করা হয়েছে। এতে বাড়বে ইটের দাম।

বিনোদন সেবা

বিনোদনকেন্দ্র তথা অ্যামিউজমেন্ট পার্ক ও থিম পার্কে ভ্যাট সাড়ে সাত থেকে বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হয়েছে। এতে ঘোরাঘুরি ও বিনোদনের খরচ বাড়তে পারে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments