জয়নাল আবেদীন:” বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষক সিরাজুম মুনিরাকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছে আদালত । তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের সত্যতা না পাওয়ায় মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আব্দুল মজিদ।

সোমবার মামলার শুনানির দিন ধার্য ছিল। আদালত শুনানি শেষে আনীত অভিযোগের সত্যতা না পাওয়ায় তাকে অব্যাহতি দিয়েছেন বলে গণমাধ্যমকর্মীদের জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী রুহুল আমীন তালুকদার।এদিকে ওই শিক্ষককে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইজার আলী বলেন, গত মার্চ মাসে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছিলাম। এই বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তির মতামত না পাওয়ায় আমরা তাকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে প্রতিবেদন দাখিল করেছিলাম।অপরদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার আবু হেনা মুস্তফা কামাল বলেন, আমি বিষয়টি মুখে মুখে শুনেছি। এখনো কাগজপত্র পাইনি। আদালত কী নির্দেশনা দিয়েছেন তা দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।উল্লেখ্য ২০১৯ সালের ১৩ জুন লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম মারা যান। তার মৃত্যু নিয়ে শিক্ষক মুনিরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘ব্যঙ্গাত্মক’ স্ট্যাটাস দেন। এটি ফেসবুকে ভাইরাল হলে মুনিরার শাস্তি দাবি করেন ছাত্রলীগ, বঙ্গবন্ধু পরিষদসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা।ব্যাপক চাপের মুখে একপর্যায়ে ওই পোস্টটি মুছে ক্ষমা প্রার্থনা করে আরেকটি স্ট্যাটাস দেন তিনি। এতে মুনিরা লেখেন, একজন সিনিয়র রাজনীতিবিদের মৃত্যু সম্পর্কে ভিন্নভাবে অভিমত ব্যক্ত করা ঠিক নয়। কর্মফল যাই হোক না কেন মৃত্যু সব সময় বেদনাদায়ক ও মর্মান্তিক। এটি অনুধাবনের পরপরই আমি আমার বক্তব্য থেকে সরে এসেছি। সেই সঙ্গে আমার আগের দেওয়া পোস্ট সরিয়ে নিয়েছি। তারপরও যারা আমার পোস্টে আঘাত পেয়েছেন তাদের কাছে আমি আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী।

Previous articleরংপুরে ৩৩ কেজি ওজনের বাঘাইড় মাছ ২৪ হাজার টাকায় বিক্রি
Next articleঅনিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু করে আবার স্থগিত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।