বাড়িতে সুস্থ হওয়া রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি দেখিয়ে লাখ টাকা আত্মসাৎ

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: সিএইচপিসি ও স্বাস্থ্য সহকারীদের জন্য দেয়া সুরক্ষা সামগ্রী আত্মসাৎ করেছেন তিনি। করোনা রোগীরা বাড়িতে থেকে সুস্থ হলেও হাসপাতালে ভর্তি দেখিয়ে আত্মসাৎ করেছেন কয়েক লাখ টাকা। এমন নানা অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সারওয়ার জাহানের বিরুদ্ধে। আর এসবের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন খোদ আরএমও।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার ইউনুস আলী মাস্টার টিকাদান কেন্দ্রে করোনাকালে সুরক্ষা সামগ্রী ছাড়াই নিয়মিত টিকা দিয়েছেন এখানকার স্বাস্থ্যকর্মীরা। একই অবস্থা কাজী হাটাসহ উপজেলার ৩৩টি কমিউনিটি ক্লিনিকের।

অভিযোগ, স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য সরকার ৬শ’ সুরক্ষা সামগ্রী দিলেও, তা লোপাট করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য এবং পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সারওয়ার জাহান। যার বাজার মূল্য ১৬ লাখ টাকা।

শুধু তাই নয়, হোম কোয়ারেন্টিনে সুস্থ্য হওয়া করোনা রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি দেখিয়ে কয়েক লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগও উঠে তার বিরুদ্ধে। যার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের আরএমও। যদিও এসব অভিযোগ মানতে নারাজ ডা. সারওয়ার।

এসব ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানিয়েছেন, বাংলাদেশ হেলথ এ্যাসিসটেন্ট ও উপজেলা সিএইচসিপি এ্যাসোসিয়েশনের নেতারা। অভিযোগের বিষয়ে সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে তদন্ত শুরু করেছে ৩ সদস্যের কমিটি।