শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪
Homeআন্তর্জাতিকসন্তান না নিলে দিতে হবে অতিরিক্ত কর !

সন্তান না নিলে দিতে হবে অতিরিক্ত কর !

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: কোনো প্রাপ্ত বয়স্ক নাগরিক যদি কারণ ছাড়াই সন্তান গ্রহণ না করেন, তাহলে তাকে দিতে হবে অতিরিক্ত কর। এমনই এক প্রস্তাব উত্থাপন করেছেন রাশিয়ার পার্লামেন্টের এক সদস্য। যদিও সোভিয়েত আমলে একই ধরণের আরেকটি আইন ছিল। তবে সোভিয়েত ভেঙে রাশিয়ার জন্মের পর সেই আইন বাতিল হয়ে যায়।

আরটি জানিয়েছে, এবার সেই আইন আবারও পুনর্বহালের আবেদন জানিয়েছেন ওই রুশ আইনপ্রণেতা। রাশিয়ায় এখন দ্রুত জনসংখ্যা বৃদ্ধি প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি। আর দেশের নাগরিকদের সন্তান গ্রহণে আগ্রহী করে তুলতে এই প্রস্তাব দিয়েছেন ইভজেনি ফিদোরোভ নামের ওই নেতা।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জার্মানির নাৎসি বাহিনীকে পরাজিত করে সোভিয়েত ইউনিয়ন। তবে ওই যুদ্ধে আড়াই কোটি সোভিয়েত নাগরিক প্রাণ দেন। ফলে যুদ্ধের পর সোভিয়েত ইউনিয়ন দ্রুত জনসংখ্যা বৃদ্ধি করতে এই আইন চালু করেছিল। সেই আইন অনুযায়ী ২০ থেকে ৫০ বছর বয়সী সকল পুরুষকে অতিরিক্ত একটা কর দিতে হতো। আর নারীদের ক্ষেত্রে ২০ থেকে ৪৫ বছরের মধ্যে হওয়া এবং বিবাহিত হওয়ার শর্ত ছিল।

ফিদোরোভ বলেন, আমাদেরকে অবশ্যই শিশু জন্ম দেয়াকে উৎসাহিত করতে হবে।

বিজ্ঞাপন
যারা ইচ্ছা করে সন্তান নেবেন না তাদের থেকে যে অতিরিক্ত কর পাওয়া যাবে, তা দিয়ে সন্তান নেয়া পরিবারগুলোর জন্য কল্যাণমূলক নানা প্রোগ্রাম চালু করা হবে। ফিদোরোভ রাশিয়ার সংসদীয় বাজেট ও কর কমিটির সদস্য।
তবে এমন কর আরোপের প্রস্তাব রাশিয়ায় এটাই প্রথম নয়। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে রাজনীতিবিদ ও চার্চগুলো থেকে একাধিকবার এমন করের কথা বলা হয়েছে। যদিও দেশটিতেই এমন প্রস্তাবের বিরুদ্ধে প্রচুর আইনপ্রণেতা রয়েছেন। পার্লামেন্টের পরিবার বিষয়ক কমিটির প্রধান নিনা ওস্তানিনা বলেন, এমন একটি কর আরোপ শুধুমাত্র সমাজতান্ত্রিক অর্থনীতিতেই সম্ভব। বর্তমান রাশিয়া এমন ব্যবস্থা থেকে বহু দূরে রয়েছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments