দেশে এখন বিচারহীনতার সংস্কৃতি চলছে: সুলতানা কামাল

জয়নাল আবেদীন: তত্তাবধায়ক সরকারের পদত্যাগী সাবেক উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল বলেছেন, আমাদের দেশে এখন বিচারহীনতার সংস্কৃতি চলছে। রাষ্ট্রকে কোনভাবেই যারা আইন লঙঘন করে তাদের সাথে কোন ধরনের আপোষকামিতায় যাবে না, সে যত শক্তিশালীই হোক না কেন। কিন্তু আমাদের দেশে দেখা যাচ্ছে অনেক ক্ষেত্রে যাদের ন্যয় বিচার দেয়ার দায়িত্ব , যারা আইনের শাসন ডেলিভারি করার দায়িত্বে আছেন, তারা অনেক ক্ষেত্রে আপোষকামিতা করে, প্রভাবশালী কিংবা প্রতাপ শালীর কাছে। সেখানে দুর্বল মানুষকে অনেক ভয়ের মধ্যে থাকতে হয়। তাদেরকে অধিকারহীনতায় বাস করতে হয়। এটা দুর করতে হবে। তিনি শুক্রবার সন্ধ্যায় রংপুর পুলিশ লাইন স্কুল অডিটোরিয়ামে ধ্রুবতারা ইয়ুথ ডেভলোপমেন্ট ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে আয়োজিত অস্টম যুব সংসদ এর সমাপনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন । সুলতানা কামাল বলেন, বাংলাদেশের কাঠামোগত উন্নয়ন হলেও সামাজিক এবং সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে সে ধরনের উন্নয়ন হয়নি, মানবাধিকার চরমভাবে ভূলুণ্ঠিত হচ্ছে। সে কারণে সরকারের কাছে মানুষ আর ন্যায় বিচার প্রত্যাশা করে না । খুন গুম হলেও আর বিচারের জন্য প্রার্থিত হয়না। যেমন সাগর রুনির পরিবার বলেছে তারা আর বিচার আশা করেননা।মানুষ এখন কথা বলার সাহস পায়না।সুলতানা কামাল বলেন, ভারত বারবার কথা দেয়ার পরেও সীমান্ত হত্যা বন্ধ করছে না এটা বড় উদ্বেগজনক। তারা রাবার বুলেট চালানোর কথা। কিন্তু সেটা করছে না। এ বিষয়ে সরকারের যথাযথ উদ্যোগ ও আমরা দেখছি না। মানুষের মানবাধিকার রক্ষা হচ্ছে না। মানুষের যদি মানবাধিকার রক্ষা না হয় তাহলে মানুষের মর্যাদা থাকেনা। মানবাধিকার রক্ষা মানে স্বাধীন থাকা। রাজনৈতিক সদিচ্ছার মাধ্যমে সরকারকেই এই অবস্থার উত্তরণ ঘটাতেহবে।এটা দায়িত্ব নিতে হবে সরকারকে।এর আগে শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টায় রংপুর পুলিশ লাইন স্কুল এন্ড কলেজের অডিটোরিয়ামে যুব সংসদের উদ্বোধন করেন সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। যুব সংসদে সারা দেশ থেকে সরকারি দলের ১৮০ জন এবং বিরোধীদলের ১২০ জন সংসদ সদস্য নেয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ধ্রবতারার চেয়ারম্যান এবং প্রধানমন্ত্রীর সাবেক একান্ত সচিব ও শিক্ষা সচিব নজরুল ইসলাম খান, রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড, নাজমুল আহসান কলিমু উল্লাহ, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আবু সুফিয়ান, পুলিশ লাইন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ জালাল উদ্দিন আকবর। জাতীয় সংসদের অনুকরণে এই যুব সংসদ চলে সন্ধ্যা পর্য়ন্ত ।