জয়নাল আবেদীন: মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তি উপলক্ষে রংপুর জেলার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী বীরমুক্তিযোদ্ধা টিপু মুনশি বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা দ্বিগুণ করে দিয়েছেন ।

এখন কোন মুক্তিযোদ্ধাকে রিকশা চালিয়ে ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করতে হয়না । বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা দ্বিগুণ করে দিয়েছেন। বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধা করে দিয়েছেন। এসব করতে সময় লাগছে। তবে মুক্তিযোদ্ধারা সুযোগ-সুবিধা পাওয়ার জন্য যুদ্ধ করেননি। তারা বাঙালি জাতির মুক্তির জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে যুদ্ধ করেছেন এবং অনেকে জীবন দিয়েছে। সেই কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের বিষয়টি অনুভব করেন। তাদের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধিসহ জীবনমান উন্নয়নের জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা করেছেন।

গতকাল মঙ্গলবার রংপুর জিলা স্কুল মাঠে জেলা প্রশাসন আয়োজিত মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তি উপলক্ষে রংপুর জেলার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পুনমিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন । নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধি প্রসঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রী বলেন সারা বিশ্বে চিনি ও ভোজ্য তেলের দাম বেড়েছে এটা গেøাবাল সমস্যা। তার পরও আমরা চেষ্টা করছি দাম কমিয়ে আনার। তিনি বলেন,দীর্ঘ ৫০ বছরে দেশ অনেক এগিয়ে গেছে মানুষের রোজগার বেড়েছে। এখন বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে উন্নয়নের রোল মডেল। করোনা মহামারীর সময় বাংলাদেশের উন্নয়ন দৃশ্যমান দেখেছে বিশ্ব। পাকিস্তান এখন সকল ক্ষেত্রে আমাদের চেয়ে শতকরা ৫০ ভাগ পিছিয়ে আছে। এটা সম্ভব হয়েছে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন কর্মকান্ডের জন্য। এর আগে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে পায়রা উড়িয়ে দিন ব্যাপি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পুর্নমিলনী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। দিন ব্যাপি অনুষ্ঠানের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধারা হাঁড়ি ভাঙ্গা দৌড়সহ বিভিন্ন প্রতিযোগীতায় অংশ নেন। এ ছাড়াও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়। অনুষ্ঠানে রসিক মেয়র মোস্তফিজার রহমান মোস্তফা, জেলা প্রশাসক আসিব আহসান,মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মোসাদ্দেক হোসেন বাবলু, মনজুরুল ইসলামম ,পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড ছাফিয়া খানম, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি শাফিয়ার রহমান সফি, সাধারণ সম্পাদক তুষারকান্তি মন্ডল সহ রংপুর জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত ৬শতাধিক বীর মুক্তিযোদ্ধা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে এই বিশেষ দিবস উপলক্ষে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের মাধ্যমে রংপুর ডায়াবেটিক সমিতি এবং রংপুর কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের উচ্চরক্তচাপ এবং ডায়াবেটিস পরীক্ষা করা হয় । এতে ৪শতাধিক বীর মুক্তিযোদ্ধা পরীক্ষা করান ।

Previous articleউল্লাপাড়ায় ১০০ টাকা আবেদন খরচে পুলিশে নিয়োগ পাওয়া ১৩ জনকে সম্বর্ধনা
Next articleপ্রতিবেশিকে পাকা কলা না দেওয়ায় কেশবপুরে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীর চুল কর্তন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।