বাংলাদেশ প্রতিবেদক: আগামী ৩০ মে নয়াদিল্লিতে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে যৌথ পরামর্শক কমিটির (জেসিসি) বৈঠক স্থগিত করা হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের এ বৈঠকের জন্য উভয়পক্ষের পারস্পরিক সুবিধামতো নতুন তারিখ ঘোষণা করা হবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. এ কে আব্দুল মোমেন এখন গুয়াহাটিতে এশিয়ান কনফ্লুয়েন্স রিভার কনক্লেভ-২০২২ (এনএডিআই) এর তৃতীয় আসরে অংশ নিয়েছেন বলে শনিবার সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

ডা. মোমেন গুয়াহাটিতে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক করেন এবং পারস্পরিক স্বার্থের বিষয়ে আলোচনা করেন।

পরে তারা জেসিসির বৈঠক পেছানোর সিদ্ধান্ত নেন।

গত মাসে ঢাকায় দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক হয় এবং পারস্পরিক সুবিধার জন্য তাদের কার্যকর বাস্তবায়নের জন্য সর্বোচ্চ পর্যায়ে গৃহীত সিদ্ধান্তগুলো অনুসরণ করার ওপর জোর দেয়া হয়।

২০২০ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর জেসিসির ষষ্ঠ সভা অনুষ্ঠিত হয়। যদিও ঢাকায় এই সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল, তবে কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে সভাটি ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

বাংলাদেশ ও ভারত উল্লেখ করেছে যে, ২০২১ বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের জন্য একটি যুগান্তকারী বছর ছিল। কারণ ভারতের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ওই বছর বাংলাদেশ সফর করেছিলেন। বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি দুই দেশ এক সঙ্গে উদযাপন করে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এ বছর ভারত সফর করবেন।

Previous articleচাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে গাঁজাসহ আটক ২
Next articleসরকারি সুবিধা পেতে নিজের স্ত্রীকেই ফের বিয়ে!
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।