সদরুল আইন: ‘জিয়াউর রহমান ও কাদের সিদ্দিকী যেখানে, স্বাধীনতা সেখানে’ বলে মন্তব্য করেছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী।

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

‘জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও পেশাজীবীদের করণীয়’ শীর্ষক এ সভায় কাদের সিদ্দিকী বলেন, আমরা স্বাধীনতার পক্ষেও নাই। আমরা স্বাধীনতার বিপক্ষেও নাই।আমরা স্বাধীনতা, আমরা স্বাধীনতা, আমরা স্বাধীনতা।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব যেখানে, ড. কামাল হোসেন যেখানে, জিয়াউর রহমান যেখানে, অলি আহমেদ যেখানে, আসম আব্দুর রব যেখানে, কাদের সিদ্দিকী যেখানে। তাদের পক্ষ হওয়ার দরকার পরে না। তারা নিজেরা স্বাধীনতা।

তিনি বলেন, আমি বলবো, আমরা স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি। আওয়ামী লীগ সরকার, যারা ভোট না নিয়ে সরকার গঠন করেছে- তারা অবৈধ সরকার। তারা স্বাধীনতার পক্ষে নয়।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, সেনা বাহিনী যদি তাদের ন্যায়- নৈতিকতা বর্জায় রাখতে পারে তাহলে ১৯১৭ সালে রাশিয়ায় যে বিপ্লব হয়েছিলে- ২০১৮ সালে ৩০ ডিসেম্বর বাংলাদেশে ভোট বিপ্লব হবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যারা চলছে তারা অন্ধকারের দিকে যাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন কাদের সিদ্দিকী।

সভায় গণস্বাস্থ্য বোর্ডের প্রতিষ্ঠা সভাপতি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলনামা এসে গেছে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর উনার আমল নামার দিন।

বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শওকত মাহমুদের সভাপতিত্বে সদস্য সচিব এজেডএম জাহিদ হোসেনের সঞ্চালনায় সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান বেগম সেলিমা রহমান, ঐক্যফ্রন্ট নেতা সুব্রত চৌধুরী, মোস্তফা মহসিন মন্টু, সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজী, এম আব্দুল্লাহ, কাদের গনি চৌধুরীসহ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

পেশাজীবী নেতাদের মধ্যে শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মাহবুব উল্লাহ, সদরুল আমিন, এবিএম ওবায়দুল ইমলাম, আখতার হোসেন, চিকিৎসক নেতা একেএম আজিজুল হকসহ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।