কাগজ প্রতিবেদক: খাদ্যে ভেজালের জন্য বিএনপি জামায়াতকে দায়ী করেছেন ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।
আজ সোমবার সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদ ভবনের পার্লামেন্ট মেম্বারর্স ক্লাব মাঠে ‘বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের’ ইফতার ও আলোচনা সভায় এ দাবি করেন তিনি।
নাসিম বলেন, ‘মানুষ পুড়িয়ে রাজনীতি করে এমন একটি রাজনৈতিক দল আছে, তাদের দ্বারাই সম্ভব এই ধরনের নরঘাতক ব্যবসা, খাদ্যে ভেজাল ব্যবসা করা। যার মাধ্যমে তাদের সন্তান মারা যেতে পারে, তার ভাই মারা যেতে পারে, আত্মীয় স্বজন মারা যেতে পারে।’
এ ছাড়া খাদ্যে ভেজাল দেওয়া ব্যবসায়ীদের আইনের আওতায় এনে ফাঁসি কার্যকর করার দাবিও জানিয়েছেন মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন, এই খাদ্যে ভেজালকারীদের ধরে প্রয়োজনে অর্থদ- দিতে। এই ভেজালকারীরা মানুষরূপী নরপিচাশ, এদের শুধু অর্থদণ্ড নয়। ১৪ দলের পক্ষ থেকে আমরা দাবি করছি, এদের মৃত্যুদণ্ড দিতে হবে। এদের কোনোভাবে ক্ষমা করা যেতে পারে না।’
বাঙালি জাতীয়তাবাদ বিরোধী সব ধর্মীয় রাজনৈতিক দলের বিরুদ্ধে ঈদের পরে হাইকোর্টে রিট করা হবে বলে জানিয়েছেন তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর মাইজ ভান্ডারী। তিনি বলেন, ‘ইসলামের নামধারী যতগুলো রাজনৈতিক দল আছে, যারা সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক, এমন প্রত্যেকটি দলের নামে নির্বাচন কমিশনকে কারণ দর্শানোর জন্য বলব এবং হাইকোর্টে রিট করব।’
তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘আমাদের বক্তব্য খুব স্পষ্ট, আপনারা দেখেছেন এবার বর্ষবরণের সময় এক মৌলভী সাহেব বলে বসলেন, ইসলামে এটার ইয়ে নেই। আরে বর্ষবরণে ইসলামের কি আছে, বাঙালি জাতীয়তাবাদ বা জাতিসত্তা আমরা কোনো ধর্মের কাছে বিকিয়ে দিতে যাই নাই।’
নজিবুল বশর মাইজ ভান্ডারীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন- সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, গণ আজাদী লীগের সভাপতি এস কে শিকদার, জাসদ একাংশের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাদাত হোসেন, তরিকত ফেডারেশনের মহাসচিব সৈয়দ রেজাউল হক চাঁদপুরী প্রমুখ।

Previous articleছাত্রলীগের ৫ নেতা বহিষ্কার, সেই লিপিকে শোকজ
Next articleপ্রসঙ্গ জামায়াতে ইসলামী নিষিদ্ধকরণ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।