নুরুল হক নুর

কাগজ প্রতিবেদক: সাধারণ মানুষদের জাগতে হবে, বৈষম্য নিয়ে কথা বলতে হবে। কারণ সাধারণ মানুষ ঐক্যবদ্ধ হলে আওয়ামী লীগ আর বিএনপির কোনো হ্যাডাম থাকবে না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নির্বাচিত হয়ে প্রথমবার নিজের গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীর চর বিশ্বাসে পৌঁছে এলাকাবাসীর সংবর্ধনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে নুরুল হক নূর এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমান বাজারে কৃষকরা ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন না। কৃষক এখন কৃষি কাজ ছেড়ে দিতে চাচ্ছে, কেউবা অন্য পেশার ওপর নির্ভর হচ্ছে। কৃষকের পাশে আওয়ামী লীগ কিংবা বিএনপি কেউ দাড়াচ্ছে না। অথচ এই অঞ্চল তথা সাগর উপকূলীয় জেলা কৃষি এবং মৎস্য সম্পদের ভাণ্ডার বলে আখ্যায়িত হয়েছে।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো. রাজা মিয়া। অনুষ্ঠানে নূরের পিতা মো. ইদ্রিস হাওলাদারসহ তার সফরসঙ্গীগন উপস্থিত ছিলেন।

নূরের নিজের বাড়ি সফরে বিভিন্ন মহল থেকে বাঁধা প্রদান করার ইঙ্গিত থাকলেও তিনি নির্বিঘ্নে বাড়ি পৌঁছান। এর আগে রোববার সকালে ঢাকা থেকে লঞ্চযোগে তিনি পটুয়াখালীর চরকাজল লঞ্চ টার্মিনালে পৌঁছালে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে বরণ করে নেয় এলাকাবাসী।

সেখান থেকে বিশাল মোটরসাইকেল শোডাউনের মাধ্যমে তিনি তার এলাকা চরবিশ্বাসে পৌঁছান। পরে চরবিশ্বাস বাজারে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে তাকে গণসংবর্ধনা দেয়া।

ছাত্র রাজনীতিতে তার এ আশাতীত সাফল্যের কারণে তাকে এক নজর দেখতে কাঠফাটা রোদ উপেক্ষা করে গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ভিড় করে হাজার হাজার জনতা।

Previous articleএবার ভারতে মাংস খাওয়ার অভিযোগে ৪ শ্রমিককে বেধড়ক মারধর
Next articleভারতের লোকসভা নির্বাচন: একটি পর্য্যালোচনা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।