আ’লীগকে হেয় করার জন্য দলের কিছু নেতাকর্মীরাই দায়ি: আ.স.ম. ফিরোজ

অতুল পাল: জাতীয় সংসদের সরকারি প্রতিষ্ঠান কমিটির সভাপতি এবং সাবেক চীফ হুইপ আ.স.ম. ফিরোজ বলেছেন, আওয়ামী লীগকে হেয় করার জন্য দলেরই কিছু নেতাকর্মী দায়ি। অবৈধ সুযোগ সুবিধা গ্রহণের লোবে তাদের ছত্রছায়ায় বিএনপি-জামাতের কিছু লোক দলে ঢুকে দলের ভাবর্মর্তি ক্ষুন্ন করেছে এবং পক্ষান্তরে প্রিয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাবমূতি ক্ষুন্ন করেছে। ক্যাসিনো সম্পর্কে যে কথা উঠেছে তার জন্যও দলের কিছু নেতাকর্মীরাই দায়ি। ক্যাসিনো কান্ডে সংসদ সদস্যসহ প্রায় পঁচিশ জনের ওপর কড়া নজরদারি রয়েছে। তাদের বিদেশ যাওয়ার ওপরেও নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘর থেকে শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন। কেউ যেন না ভাবেন আওয়ামী লীগের মধ্যেই এই শুদ্ধি অভিযান সীমাবদ্ধ থাকবে। এ অভিযান সকল দল ও মতের উর্ধে থেকে করা হচ্ছে। দেশ থেকে সকল প্রকার দুর্নীতি দুর করার জন্যই প্রধানমন্ত্রীর এ অভিযান। আ.স.ম. ফিরোজ বলেন, প্রধানমন্ত্রী তাদেরকে দায়িত্ব দিয়েছেন, দলকে সু-সংগঠিত করতে। দলের মধ্যে যারা ঘাপটি মেরে বসে থেকে বিতর্কিত কর্মকান্ড করছেন, দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন তাদেরকে দল থেকে সরিয়ে ত্যাগি নেতাকর্মীদের সর্ম্পৃক্ত করতে হবে।

আজ পটুয়াখালীর বাউফলের ধুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আ.স.ম. ফিরোজ এ কথা বলেন। ধুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আ. রবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদার, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম বেগম নিশু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম ফারুক, উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক এস.এম. ফয়সাল আহমেদ মনির মোল্লা, মুক্তিযোদ্ধা বারেক মিয়া এবং মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাবুন্সিলের সাবেক সভাপতি শামসুল আলম মিয়া প্রমূখ।