বাংলাদেশ প্রতিবেদক: শহীদ নাজির উদ্দিন জেহাদ বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাসে এক চিরস্মরণীয় নাম বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার শহীদ জেহাদ দিবস উপলক্ষে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, গণতন্ত্রকে পুনরুদ্ধার করতে শহীদ জেহাদ নিজেকে উৎসর্গ করেছেন। তার এই আত্মদানের ফলেই স্বৈরাচারী এরশাদের পতন হয়। শুরু হয় সাংবিধানিক ধারাবাহিকতা। নব্বইয়ে স্বৈরাচারী সরকারকে উৎখাত করে গণতন্ত্রের বিজয়ে তার অগ্রণী ভূমিকার জন্য জাতি হিসেবে আমরা গর্ববোধ করি।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দী করে রাখার পর এখন নানা বিধি-নিষেধের আওতায় গৃহবন্দী করে রেখেছে। দেশনেত্রীর ওপর এই নিপীড়নের ঘটনায় প্রমাণিত হয়-এদেশে মানবতার অস্তিত্ব চরম ঝুঁকির মধ্যে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমার দৃঢ় বিশ্বাস, শহীদ জেহাদের আত্মদান বর্তমান দুঃশাসনের বিরুদ্ধে সকল গণতান্ত্রিক শক্তিকে কঠিন সংগ্রামে উদ্বুদ্ধ করবে। যে স্বপ্ন ও আশা নিয়ে শহীদ জেহাদ ওই দিন স্বৈরাচারীর বুলেট নিজের বুকে বরণ করে নিয়েছিলেন, সেই স্বপ্ন পূরণে রাষ্ট্র ও সমাজের সকল স্তরে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠা করাই হবে আমাদের আজকের সংগ্রামের মূল লক্ষ্য।

এ সময় শহীদ জেহাদ দিবস উপলক্ষে গণতন্ত্র পূনঃপ্রতিষ্ঠার আন্দোলনে অগ্রসেনা শহীদ নাজির উদ্দিন জেহাদের রুহের মাগফিরাত কামনা ও তার স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন বিএনপি মহাসচিব।

Previous articleতুরাগ নদীতে নৌকাডুবি: নারী ও ২ শিশুর মরদেহ উদ্ধার
Next article৯ মাস পর বাংলাদেশে টিকা পাঠাতে শুরু করেছে সেরাম
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।