বাংলাদেশ প্রতিবেদক: পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য নয়, প্রকল্প থেকে বিপুল অর্থ লুটপাট করে বিদেশে পাচারেই বিএনপির গায়ে জ্বালা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘পদ্মা সেতুতে ১০ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হওয়ার কথা ছিল, সেটি এখন ৩০ থেকে ৪০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে। সুতরাং সেতু নির্মাণের জন্য নয়, প্রকল্পের হাজার হাজার কোটি টাকা লুটের কারণেই আমাদের গায়ে জ্বালা হচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার জিয়াউর রহমানকে নিয়ে একটি বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিএনপি এই নেতা আরো অভিযোগ করেন, ক্ষমতাসীন দলের নেতারা জনগণের কষ্টার্জিত অর্থ লুটপাট করে বিদেশে পাচার করছেন। এটি আমাদের মনকষ্টের কারণ।

ফখরুল বলেন, সরকার জাতির সব অর্জনকে ধ্বংস করে দেশের মানুষের ওপর ঋণের বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে।

তিনি বলেন, তারা এখন পদ্মা সেতু নিয়ে আস্ফালন করে। কারো পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে এই সেতু নির্মাণ করা হচ্ছে না। দেশের জনগণের পকেট থেকে নেয়া অর্থ দিয়ে এটি নির্মিত হচ্ছে।

ক্ষমতাসীন দলের নেতারা নানাভাবে সব মেগা প্রকল্পের টাকা লুটপাট করছেন বলে অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব।

রাজধানীতে নির্মাণাধীন মেট্রোরেল প্রকল্প সম্পর্কে তিনি বলেন, শুধু জনগণের টাকা লুটপাটের জন্য অপ্রয়োজনীয়ভাবে অল্প দূরত্বে অনেক স্টেশন তৈরি করা হচ্ছে। আমি পৃথিবীর কোনো মেট্রো রেলে এত কাছাকাছি দূরত্বে এত স্টেশন দেখিনি। তাদের (সরকারের) লক্ষ্য হলো দুর্নীতি ও লুণ্ঠন।

ফখরুল বলেন, দুঃশাসন, দুর্নীতি ও লুণ্ঠনের কারণে জাতি এখন অস্তিত্ব সংকটের সম্মুখীন। আমরা যদি এটা কাটিয়ে উঠতে না পারি তাহলে আমাদের গণতন্ত্র, অর্থনীতি, সমাজ, ভবিষ্যত ধ্বংস হয়ে যাবে।

তিনি তরুণ প্রজন্মকে শক্তিশালী আন্দোলন করে দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

Previous articleছিনতাইকৃত মোটরসাইকেল ১ বছর পর উদ্ধার, সাপাহারে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ২ সদস্য গ্রেপ্তার
Next articleকাবুল ও মাজার-ই শরিফে বোমা হামলা, নিহত ১১
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।