বাংলাদেশ প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু বলেছেন, সংবিধান অনুযায়ী আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেই নির্বাচনে এ দেশের মানুষ আবারো শেখ হাসিনাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবে।

আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

আমির হোসেন বলেন, এ দেশের মানুষের জন্য যা করণীয় তা শেখ হাসিনা করে যাচ্ছেন। তাদের অধিকার আদায়, উন্নয়নের স্বার্থ এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত সব কাজই আস্তে আস্তে শেষ করে যাচ্ছেন। সেজন্যই বিএনপি, জামাত ও স্বাধীনতা বিরোধীরা তাকে সহ্য করতে পারে না। এ কারণেই তারা ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা চালিয়ে শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে চেয়েছিল। মানুষের অসীম দোয়ায় সেদিন আল্লাহ তাকে বাঁচিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমরা সব সময়ই রাজনৈতিকভাবে বিএনপি জামায়াতকে পরাজিত করেছি, সামনের নির্বাচনেও পরাজিত করব।

আওয়ামী লীগের প্রবীণ এই নেতা বলেন, ২০০৪ সালে যারা গ্রেনেড হামলার মত নিকৃষ্ট কাজ করল, হত্যাযজ্ঞ চালাল এরাও এখন মানবতার কথা বলে। আবার রাজনীতিও করছে তারা। তাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে সরকারকে উৎখাত করা।

সভায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম, সাম্যবাধী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, বাসদের আহবায়ক রেজাউর রশিদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিএনপি নালিশ পার্টি উল্লেখ করে মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম বলেন, বিএনপি দলটা হলো নালিশি দল। মিথ্যা, ষড়যন্ত্র আর নালিশ করাই হলো তাদের মূল কাজ। জনগণের কাছে তারা যায় না। তারা পল্টন ও নয়াপল্টন দুই জায়গায় বসে একই বক্তব্য দিতে থাকে। বলতে থাকে আওয়ামী লীগ ধ্বংস করতে হবে। এছাড়া আর কোনো কথা তারা বলে না।

Previous articleডিজেলের দাম সমন্বয়ের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত ‘কাল-পরশুর মধ্যে’: প্রতিমন্ত্রী
Next articleসাহায্য চেয়ে চিরকুট ছুঁড়ছে পাকিস্তানের বন্যার্তরা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।