শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪
Homeরাজনীতিযুবলীগের সম্মেলনকে ঘিরে রাজশাহী মহানগরীর চারিদিকে সাজসাজ রব

যুবলীগের সম্মেলনকে ঘিরে রাজশাহী মহানগরীর চারিদিকে সাজসাজ রব

মাসুদ রানা রাব্বানী : আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর রাজশাহী মহানগর যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। সেই হিসাবে আর দুদিন পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে রাজশাহী মহানগর যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। টানা সাত বছর পর
হবে এ সম্মেলন।

সম্মেলনকে ঘিরে সবুজ নগরী রাজশাহী সেজেছে বর্ণিল সাজে। চারিদিকে সম্ভব্য পদপ্রত্যাশিদের পোষ্টার, ব্যানার ফেস্টুনে সাজসাজ রব বিরাজ করছে। নগরীর গুরুত্বপূর্ন সড়কে নির্মাণ করা হয়েছে তরণ। নগরীর
কাশিয়াডাঙ্গা থেকে বিনোদপুর, রেল গেট থেকে নওদাপাড়া সবখানেই পদ প্রত্যাশিদের পোষ্টার ফেস্টুন ব্যানার, তোরণ শোভা পাচ্ছে। এদিকে সম্মেলনকে সফল করার লক্ষে সভাপতি প্রার্থী তৌরিদ আল মাসুদ রনির নেতৃত্বে চলছে জোর প্রস্তুতি। নেতাকর্মীদের উজ্জবীবিত করতে যুবলীগ নেতা রনি প্রতিদিন ও রাত সাংগঠনিক ৩৭ ওয়ার্ডে নেতাকর্মীদের নিয়ে মতবিনিময় সভা করছেন।

তৌরিদ আল মাসুদ রনি সম্মেলনকে সফল করার জন্য দিনরাত নেতাকর্মীদের নিয়ে ছুটছেন নগরীর এ প্রাপ্ত থেকে ও প্রাপ্ত। সাথে রয়েছেন সহযোগি সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী মুকুল শেখ। সম্মেলন সফল করতে নেতাকর্মীরাও তৌরিদ আল মাসুদ রনির নিদের্শনায় কাজ করছেন। ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করতে তিনি নিরলস প্রচেষ্টা করে যাচ্ছেন। লক্ষ্য একটাই সাত বছর পর রাজশাহী মহানগর যুবলীগের সম্মেলন সফল করা। অপরদিকে সম্মেলনকে ঘিরে পদ প্রত্যাশিরাও সমর্থন পাওয়ার আশায় ছুটছেন তৃণমূল নেতাদের কাছে। এতে নেতাকর্মীদের মাঝেও প্রাণচাঞ্চল্যতা ফিরে এসেছে। বিশেষ করে এবার যারা পদপ্রত্যাশি তাদের মধ্যেও অনেকটাই প্রাণ ফিরে এসেছে। এখন দেখার বিষয় কে হচ্ছেন আগামী দিনে রাজশাহী মহানগর যুবলীগের কান্ডারী।

এর আগে গত ফেব্রুয়ারীতে মহানগর যুবলীগের কমিটি গঠনের লক্ষ্যে কেন্দ্র থেকে প্রার্থীদের জীবনবৃত্তান্ত চাওয়া হয়। গত ১৮, ১৯ ও ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রার্থীদের জীবনবৃত্তান্ত জমা নেয় হাইকমান্ড। এই তিনদিনে
সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে ১৮ জন মহানগর যুবলীগ নেতা জীবনবৃত্তান্ত জমা দেন। এর মধ্যে সভাপতি পদে ১০ জন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে ১৮ জন। তবে দুই মেয়াদে টানা ২০ বছর দায়িত্বে থাকা সভাপতি রমজান আলী ও সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন বাচ্চু যুবলীগের গঠনতন্ত্র মেনে এবার জীবনবৃত্তান্ত জমা দেননি।

সভাপতি পদে জীবনবৃত্তান্ত জমা দিয়েছেন মহানগর যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌরিদ আল মাসুদ রনি, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সিটি করপোরেশনের ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন,
নগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শফিকুজ্জামান শফিক, আমিনুর রহমান খানরুবেল, যুবলীগ নেতা মাহমুদ হাসান খান চৌধুরী ইতু, আশরাফুল আলম, মুখলেছুর রহমান মিলন, অ্যাডভোকেট কাওসার রহমান নাইজার, ইউসুফ আলী ও রবিউল ইসলাম রুবেল।

এদিকে সাধারণ সম্পাদক পদে জীবনবৃত্তান্ত জমা দিয়েছেন মহানগর যুবলীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক মুকুল শেখ, নগর যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নাহিদ আকতার নাহান, সাংগঠনিক সম্পাদক রায়হানুর রহমান রয়েল, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, মনিরুজ্জামান খান মনির, মাজেদুল আলম শিবলী, রেজাউর রহমান রাজীব, রমজান আলী জনি, জয়নাল আবেদীন, পিয়ারুল ইসলাম পাপ্পু, আরকান বাপ্পি, শাহাদাত হোসেন সুজন শেখ, মোরসালিন হক রাবু, আশিকুর রহমান অদ্বিত, মামুনুর রশিদ মাহবুব, প্রভাত রয় মনা, প্রণব সরকার ও জাহিদ হাসান।

এবার মহানগর যুবলীগের সভাপতি হিসাবে জীবনবৃত্তান্ত জমা দেয়া ১০জনের মধ্যে আলোচনায় রয়েছেন মহানগর যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌরিদ আল মাসুদ রনি, নগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শফিকুজ্জামান শফিক, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও রাসিকের ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন। সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় আছেন মহানগর যুবলীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক মুকুল শেখ, নগর যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নাহিদ আকতার নাহান, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন। এবার মহানগর যুবলীগে সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক পদে তরুণরা জায়গা পাবে এমনটাই প্রত্যাশা তৃণমূলের। সে ক্ষেত্রে সাংগঠনিকভাবে যার তৎপরতা বেশি তাদেকেই দেয়া হবে এই গুরুত্বপূর্ণ পদ দুটি। তৃণমূল
নেতৃকর্মীদের মতামতে নির্বাচিত হবে সভাপতি ও সম্পাদক।

এদিকে সভাপতি পদের প্রার্থীদের মধ্যে মহানগর যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌরিদ আল মাসুদ রনিকে নিয়ে সোরগোল বেশি শোনা যাচ্ছে। তবে তৃণমূলের ভাবনায় প্রথম সারিতে রয়েছেন রনি। এবার ত্রি-বাষিক
সম্মেলনে রাজশাহী মহানগর যুবলীগের সভাপতি হিসাবে রনিকে দেখতে চান তৃণমূল। সভাপতি হিসাবে রনির বিকল্প কাউকে দেখছে না নেতাকর্মীরা।

 

এবার সাধারণ সম্পাদক পদে ১৮ জনের মধ্যে যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুকুল শেখ, নগর যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নাহিদুল আকতার নাহান আলোচনায় রয়েছে। জানা গেছে, ২০১৬ সালের ৫ মার্চ মহানগর যুবলীগের সম্মেলন হয়। ওই সম্মেলনে দ্বিতীয় মেয়াদে রমজান আলী সভাপতি ও সম্পাদক হন মোশাররফ হোসেন বাচ্চু। এরআগে ২০০৪ সালের ১৮ এপ্রিল সম্মেলনে তারাই সভাপতি সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন। বলাই যায় টানা প্রায় ২০ বছর পর এবার রাজশাহী মহানগর যুবলীগে নতুন নেতৃত্ব আসছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerkagoj.com.bd/
Ajker Bangladesh Online Newspaper, We serve complete truth to our readers, Our hands are not obstructed, we can say & open our eyes. County news, Breaking news, National news, bangladeshi news, International news & reporting. 24 hours update.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments