কাগজ ডেস্ক: আটক ভারতীয় পাইলটের সঙ্গে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সদ্ব্যবহারের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন দেশটির ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি।  আফ্রিদি বলেন, পাকিস্তানের সেনাদের জন্য গর্ববোধ করি। পাকিস্তান সেনাদের স্যালুট।
পাক-ভারত সীমান্তে চরম উত্তেজনার মধ্যে আটক ভারতের পাইলট অভিনন্দনের একটি ভিডিও টুইটারে শেয়ার করেন বুম বুম আফ্রিদি। ওই ভিডিওর নিচে ক্যাপশনে তিনি এসব কথা বলেন।
ভিডিওতে দেখা গেছে, অভিনন্দন নামে ওই পাইলট চা খেতে খেতে বলেছেন- তার সঙ্গে ভালো আচরণ করেছেন পাকিস্তান সেনারা। তিনি পাকিস্তান সেনাদের ব্যবহারে অভিভূত। তাদের কাছে অনেক কিছু শেখার আছে বলেও মন্তব্য করেন।
ভিডিওটির নিচে ক্যাপশনে আফ্রিদি লেখেন- ‘পাকিস্তানি সেনাদের জন্য গর্ববোধ করি। শত্রুদেরও এভাবেই আমরা আপ্যায়ন করে থাকি। ভারত যে যুদ্ধের হিস্টরিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে, সেটির এখন শেষ হওয়া দরকার। আমরা শান্তিপ্রিয় জাতি। এ সংকটের একমাত্র সমাধান আলোচনা, যা আমাদের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান উল্লেখ করেছেন।’
বুম বুম আফ্রিদির এই টুইটটি ভাইরাল হয়। এতে লাইক দিয়েছেন ২৯ হাজারের বেশি মানুষ।
প্রসঙ্গত গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধাসামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে হামলায় অন্তত ৪৪ সেনা নিহত হন। এ আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ। ভারত এ হামলার পেছনে পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে দাবি করে আসছে।
এ হামলার জেরে গত মঙ্গলবার কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাকিস্তানের বালাকোটে বিমান হামলা চালায় ভারতীয় বাহিনী। হামলায় ২০০ থেকে ৩০০ জঙ্গি নিহত হন বলে দাবি করেছে দেশটি।
এখানেই থেমে নেই, গত বুধবার পাকিস্তান সীমান্তে ভারতীয় দুই যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করেন পাকিস্তান সেনারা। জবাবে ভারত পাকিস্তানের দুটি যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করে।
ঘটনাপ্রবাহে পাকিস্তান বাহিনীর হাতে বন্দি হন দেশটির এক পাইলট। আর পাকিস্তান হারায় একটি যুদ্ধবিমান।
ইসলামাবাদে আটক হয় ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন। তাকে আজ শুক্রবার মুক্তি দেয়া হবে বলে পাকিস্তানের পার্লামেন্টে জরুরি অধিবেশনে ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তার এ ঘোষণার পর ভারতীয় বিমানবাহিনী বলছে, পাইলট অভিনন্দনের মুক্তি জেনেভা কনভেনশনের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ।