শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
Homeখেলাধুলানিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখলো ইংল্যান্ড

নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখলো ইংল্যান্ড

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: পা ফসকালেই শেষ বিশ্বকাপ। খেলা হবে না আর সেমিফাইনালে। এমন সমীকরণ সামনে রেখে আজ নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হয় ইংল্যান্ড। তবে শেষ পর্যন্ত ২০ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জশ বাটলাররা। এই জয়ে সেমিফাইনাল স্বপ্ন টিকে রইলো ইংলিশদের। ৫ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষ দুইয়ে চলে এসেছে তারা। সমান সংখ্যক পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে ইংল্যান্ড ও তৃতীয় স্থানে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া।

মঙ্গলবার ব্রিসবেনে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে উড়ন্ত সূচনা পায় জশ বাটলারের দল। সম্মুখ থেকে নেতৃত্ব দেন স্বয়ং জশ বাটলার। খেলেন ৪৭ বলে ৭৩ রানের ইনিংস। জশ বাটলার ও এলেক্স হেলসের উদ্বোধনী জুটিতেই আসে ৮১ রান। ১০.২ ওভারে ৪০ বলে ব্যক্তিগত ৫২ রানে ফিরেন এলেক্স হেলস।

এইদিন ওয়ান ডাউনে সুযোগ পাওয়া মইন আলি বিধ্বংসী হয়ে উঠার সুযোগ পাননি, ৬ বলে ৫ রান করে ফিরেন তিনি। ততক্ষণে দলের রান তিন অংক ছুঁয়েছে। ১৮ তম ওভারে লিয়াম লিভিংস্টোন ১৬ বলে ২০ করে ফিরে গেলে দ্রুত হ্যারি ব্রককেও হারায় ইংল্যান্ড। মাত্র ৭ রান করেন টিম সাউদির শিকার হন এই ব্যাটার।

১৮.৪ ওভারে জশ বাটলার রান আউটের ফাঁদে পড়ে ফিরে গেলে নির্ধারিত ওভার শেষে ৬ উইকেটে ১৭৯ রানেই থামে ইংল্যান্ডের ইনিংস। মাঝে বেন স্টোকসও ফিরেন ৮ রান করে। ইংল্যান্ডের হয়ে ২ উইকেট নেন লুকি ফার্গুনসন, একটি করে উইকেট পান টিম সাউদি, ইশ সোধি ও সান্টনার।

১৮০ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা স্বভাবসুলভ হয়নি কিউইদের। দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে ৯ বলে মাত্র ৩ রানে ফিরেন ডেভন কনওয়ে। আরেক ওপেনার ফিন অ্যালেন ফিরেন ১১ বল থেকে ১৬ রানে। ৫ ওভারেই মাত্র ২৮ রানে ২ উইকেট হারিয়ে ফেললে খানিকটা বিপাকে পড়ে যায় ব্ল্যাক ক্যাপসরা।

সেখান থেকে দলকে টেনে তুলেন গ্লেন ফিলিপস। আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান এই ম্যাচেও ফের জ্বলে উঠেন স্বরূপে। সাবধানী শুরু করলেও সময়ের সাথে সাথে আগ্রাসী হয়ে উঠে তার ব্যাট। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের সাথে ৫৯ বলে ৯১ রানের জুটি গড়েন ফিলিপস। ১৫তম বেন স্টোকসের শিকার হয়ে ৪০ বলে ৪০ রান করে উইলিয়ামসন ফিরে গেলে ভাঙে এই জুটি।

শেষ ৩১ বলে যখন প্রয়োজন ৬১ রান, হাতে আছে ৭ উইকেট। তখনই পথ হারায় নিউজিল্যান্ড। ইংলিশ বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শেষ ৫ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে আসে মাত্র ৩৬ রান। ১৬, ১৭, ১৮ ও ২০তম ওভারে কোনো বাউন্ডারিই মারতে পারেনি কিউইরা। এর মাঝে ১৮তম ওভারে গ্লেন ফিলিপসও ফিরে যান। আউট হবার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৩৬ বলে ৬২ রান।

ফিলিপসের আগে ফিরেন জিমি নিশাম ও ডেরিয়েল মিচেলও। ৩ বলে ৬ করেন জিমি নিশাম, ৫ বলে ৩ রান আসে মিচেলের ব্যাটে। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রানেই থামে কিউইদের ইনিংস। ২০ রানের অতি প্রয়োজনীয় জয় পায় ইংল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত ১০ বলে ১৬ রানে অপরাজিত ছিলেন মিচেল সান্টনার। দুটো করে উইকেট পান ক্রিস ওকস ও স্যাম কুরান।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments