বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজধানীর ইব্রাহিমপুরে খালের ওপর গড়ে তোলা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে গিয়ে ব্যবসায়ীদের বাধার মুখে পড়েন উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। তবে বাধা উপেক্ষা করেই খালের দুই পাশে গড়ে উঠা বিভিন্ন অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।

শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনের দায়িত্ব আনুষ্ঠানিকভাবে ঢাকা ওয়াসার কাছ থেকে দুই সিটি করপোরেশনকে হস্তান্তর করার পর বেশ জোরেশোরেই খাল উদ্ধারের কার্যক্রম শুরু হয়। সোমবার (৪ জানুয়ারি) রাজধানীর মিরপুরের ইব্রাহিম খালে পরিচ্ছন্নতা ও উচ্ছেদের কাজ শুরু করে উত্তর সিটি করপোরেশন।

প্রায় ৬০ ফিট খালের সিংহভাগ দখল করে গড়ে ওঠা বিভিন্ন দোকান ও ঘরবাড়ি ভেঙে ফেলা হয়। এ সময় মেয়রের উপস্থিতিতেই অবৈধ দখল করে থাকা ব্যবসায়ীরা বিক্ষোভ করে। বাধা দেওয়ার চেষ্টা করা হয় উচ্ছেদ কার্যক্রমে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

করপোরেশনের প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপক বলছেন, ইব্রাহিমপুর খালকে পুরোপুরি দখলমুক্ত করা হলে রাজধানীর বর্ষাকালে জলাবদ্ধতার নিরসন হবে।

দখলদার যতই প্রভাবশালী হোক কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়ে উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, খালকে পুরোপুরি দখলমুক্ত করতে কোনো ধরনের প্রভাবশালীকে ছাড় দেওয়া হবে না। এই উচ্ছেদ অভিযান চালু করেছি, এটা অব্যাহত থাকবে

Previous articleভ্যাকসিন আমদানিতে কোনো সমস্যা নেই: হানিফ
Next articleজিম্বাবুয়েতে বন্ধ হলো ক্রিকেট
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।