কাগজ প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. আমির হোসেনের গাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও গুলির ঘটনা ঘটেছে। এসময় গাড়িতে থাকা বানু দাস (৪৫) নামে এক গ্রামপুলিশ গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন।
শনিবার সকাল ১০টার দিকে আশুগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরপুর-তালশহর সড়কে এ ঘটনা ঘটে।
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. আমির হোসেন বলেন, সকাল পৌনে ১০টার দিকে খাটিহাতা বিশ্বরোড এলাকায় পাম্প থেকে গ্যাস আনতে যাচ্ছিল আমার গাড়িচালক।
বাহাদুরপুর-তালশহর সড়কের সামনে পৌঁছার পর ৭/৮ জনের একটি সন্ত্রাসী দল আমার গাড়ি থামিয়ে চালককে টেনে হেঁচড়ে নামায়।

এসময় গাড়িতে থাকা গ্রামপুলিশ বানু চিৎকার দিতে চেষ্টা করলে ক্ষিপ্ত হয়ে সন্ত্রাসীরা বানুকে গুলি করে। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আরও বলেন, সন্ত্রাসীরা আমাকে ও আমার বাবাকে মারতে এসেছিল। আমরা গাড়িতে না থাকায় প্রাণে বেঁচে যাই।
হামলার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত আটক করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান আমির হোসেন।
এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ থানার ওসি মো. মাসুদ আলম বলেন, কেন এই হত্যাকাণ্ড তা এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না। তবে ঘটনার তদন্ত চলছে।
তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে পুলিশের একাধিক দল কাজ শুরু করেছে। তবে এখানে অন্য কোনো রহস্য আছে কিনা তা যাচাই না করে বলা যাবে না।

Previous articleরায়পুরে ১২ তলা ভবন থেকে পড়ে শিশুর এক মৃত্যু
Next articleদুর্নীতিমুক্ত সমাজ উন্নত জাতি গঠনের পূর্বশর্ত: দুদক সচিব
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।