বাউফলে সপ্তম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ

অতুল পাল: পটুয়াখালীর বাউফল পৌর শহরের ৬ নং ওয়ার্ডে সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া এক মাদ্রাসা ছাত্রিকে (১৪) ধর্ষণ করেছে এক দুর্বৃত্ত। মঙ্গলবার সন্ধা সাত টার দিকে এঘটনা ঘটেছে। রাত সারে ১২ টার দিকে এসআই জাকিরের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে ধর্ষক মানিক সরদার (৪১) কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধর্ষক মানিক সরদারের হাসান (১০) ও ইউফুল (৩) নামের দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে। তার পিতার নাম আফতের আলী সরদার। ধর্ষিতার পরিবার সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সন্ধার পর ওই ছাত্রি প্রাইভেট পড়ার জন্য পাশেই মামা বাড়ি যাচ্ছিল। পথিমধ্যে ধর্ষক মানিক সরদার ছাত্রিটির মুখ চেপে ধরে পাশে মোস্তফা মিয়ার রান্না ঘরে নিয়ে ওড়না দিয়ে মুখ বেধে ধর্ষণ করে। ওই সময় মোস্তফার ঘরে কোন লোক ছিলনা। ধর্ষণের পর ওই ছাত্রি মামা বাড়ি গিয়ে ছোট মামা বেল্লালের কাছে বিস্তারিত জানায়। এরপর বেল্লাল বাউফল থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করলে এসআই জাকিরের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযান চালিয়ে ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য বুধবার পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পঠিয়েছেন এবং ধর্ষককে আদালতে সোপর্দ করেন। বাউফল থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এব্যপারে বাউফল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৯ এর ১ ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে।