সংবাদ সম্মেলনের পর গ্রেফতার হলো আনসার দলনেত্রী মুর্শিদা

এস এম শফিকুল ইসলাম: জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা কামরুল হাসানের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি, নকল জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি, স্বজনপ্রীতি ও মিথ্যা মামলা দায়েরসহ নানা অভিযোগ তুলে সংবাদ সম্মেলন করায় আওলাই ইউনিয়ন আনসার দলনেত্রী মুর্শিদা বেগমকে বাড়ি থেকে আনসার সদস্যরা জোড়পূর্বক টেনে-হেচড়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে গ্রামবাসি পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে তাকে আটক করে হাজতে পাঠিয়েছে। শনিবার সন্ধ্যার আগে ওই উপজেলার আওলাই ইউনিয়নের শন্তাদিগড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা কামরুল হাসানের বিরুদ্ধে গত শুক্রবার দুপুর ১২টায় জয়পুরহাট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন ইউনিয়ন দলনেত্রী মুর্শিদা বেগম। উল্লেখ্য যে, গত ৪ নভেম্বর মুর্শিদা বেগমকে ৩নং আসামী করে পাঁচবিবি থানায় একটি মামলা করেছেন উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা কামরুল হাসান। এরপর মুর্শিদার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে বলে প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার, জেলা কমান্ড্যান্ট বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা কামরুল হাসানকে আনসার সদস্যদের পাঠিয়ে ধরে আনার ব্যাপারে তার বক্তব্য নিতে চাইলে তিনি বলেন, আমার উর্দ্ধতন কর্মকর্তার অনুমতি ছাড়া সাংবাদিকদের সাথে কথা বলা নিষেধ। এদিকে পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন, ঘটনার খবর শুনে মুর্শিদাকে আটক করে থানায় এনে আদালতে পাঠানো হয়েছে।