কালিহাতীতে পৃথক ঘটনায় মন্দিরে ঢুকে ১০ টি প্রতিমা ভাংচুর

আবুল কালাম আজাদ: টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে আবারও কালীমন্দিরে প্রতিমা ভাঙচুর ঘটনা ঘটেছে। গত বুধবার কালিহাতী পৌর এলাকার সিলিমপুর উত্তর সেনবাড়ি সার্বজনীন কালীমন্দিরে ৫টি প্রতিমার মাথা ভাংচুরের পর বৃহস্পতিবার রাতে আবারও উপজেলার বাংড়া নাথবাড়ি মদন মোহন নাথ এর ঠাকুরদার কালীমন্দিরে প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। মন্দিরে থাকা পাঁচটি প্রতিমার মধ্যে মহাদেব, জুগিনি ও শীতলী প্রতিমার মাথা কেটে এবং কালি ও ডাকিনী প্রতিমা ভাংচুর করে ফেলে রেখে যায়। গতকাল বুধবার কালিহাতী পৌর এলাকার সিলিমপুর উত্তর সেন বাড়ি সার্বজনীন কালি মন্দিরে ভাংচুর ঘটে আবার বৃহস্পতিবার নাথবাড়ি কালীমন্দিরে প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়েদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। পরপর এরকম দুটি ঘটনায় কালিহাতীতে আইন-শৃঙ্খলার চরম অবনতি দেখা দিয়েছে। বাংড়া নাথবাড়ি পারিবারিক কালীমন্দিরের মালিক সুবীর কুমার নাথ জানান, মন্দিরে থাকা প্রতিমাগুলো ভাঙচুর অবস্থায় স্থানীয় লোকজন দেখতে পেয়ে আমাকে জানালে তাৎক্ষনিক পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনকে জানানো হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহাদুজ্জামান,কালিহাতী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ লীগের সাধারণ সম্পাদক আনছার আলী বি.কম, সহকারী পুলিশ সুপার (কালিহাতী সার্কেল) রাসেল মনির, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (উত্তরের ওসি) সাজ্জাদ হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম আরা নিপা, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুদীপ কুমার দত্ত মানু প্রমুখ। এ বিষয়ে কালিহাতী থানার ওসি হাসান আল মামুনের নিকট প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি কোন মন্তব্য না করে এরিয়ে যান।