আক্কেলপুরে পাঁচশত বছরের পুরোনো গোপীনাথপুরের দোলযাত্রা মেলা শুরু

আতিউর রাব্বী তিয়াস: দোল পূর্ণিমা উপলক্ষে জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার গোপিনাথপুর মন্দির প্রাঙ্গণে আজ সোমবার থেকে শুরু হলো ঐতিহ্যবাহী দোলযাত্রার মেলা। ৫০০শত বছরের পুরনো এই ঐতিহ্যবাহী গোপীনাথপুরের মেলায় সাম্প্রদায়িক ভেদাভেদ ভুলে দূর-দূরান্তের দর্শনার্থীদের পদচারণায় মূখরিত হয়ে উঠছে এ মেলা প্রাঙ্গণ। গোপীনাথের প্রধান মন্দির থেকে ঠাকুর মূর্তি বাজার মন্দিরে নেওয়ার মধ্য দিয়ে আজ সোমবার থেকে শুরু হলো হিন্দু সম্প্রদায়ের গোপীনাথপুর দোলযাত্রা মেলা। রীতি অনুযায়ী বাজার মন্দিরে ঠাকুরের অবস্থান পর্যন্ত চলবে এই মেলা। মেলাকে ঘিরে ইতোমধ্যেই প্রায় ১ কিলোমিটার জায়গা জুড়ে শতাধিক বিঘা জমির উপরে বসতে শুরু করেছে গরু মহিষ ও ঘোড়ার হাট। চলবে বেচা-কেনাও। এখানে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ছুটে আসেন নানা বয়সের মানুষ। ইদানিং মানুষের কাছে গরু, মহিষের পাশাপাশি আকর্ষণীয় ও ছোট বড় সকলের মজার একটি খোরাক হলো ঘোড়ার দৌড় খেলা। এই ঘোড়া দৌড় খেলা দেখতে দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা থেকে হাজার হাজার মানুষের সমাগম ঘটে। ইতিমধ্যে নওগাঁ থেকে আসা ঘোড়া ব্যবসায়ী আহম্মেদ শাহ বলেন, গত চার বছর ধরে তিনি এ মেলায় আসেন ঘোড়া বিক্রি করতে। তিনি একটি ঘোড়া নিয়ে এসেছেন আগেই,তবে বিক্রি ভাল হলে আরো চারটি ঘোড়া আনবেন। আব্দুস সামাদ দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে এ মেলায় মহিষ নিয়ে আসেন। তিনি বলেন এবারও আসবো তাই আগে ভাগেই মহিষের ভূড়া তৈরীর জন্য এসেছি। আমার এবার গ্রাম হতে ২০ জোড়া মহিষ আসবে। আজ দেখছি অনেকেই চলে এসেছে। এ মেলার প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে- গরু-মহিষ ও ঘোড়া কেনা-বেচা। কাঠের আসবাবপত্রসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষ-পত্রও পাওয়া যায় এই মেলায়। এছাড়া দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা বাহারী সামগ্রী,স্পিড বোড,শূন্য নৌকা ভাসানো,পুতুল নাচ,মোটরসাইকেল খেলা,আজব প্রাণী প্রদর্শনী,যাত্রা,সার্কাস ও শিশুদের জন্য নাগরদোলাসহ নানা ধরনের চিত্তবিনোদনের ব্যবস্থা রয়েছে মেলায়। আরো রয়েছে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ দেশী বিদেশী কম্বলের দোকান,কাঠের আসবাবপত্র ও বাহারী মিস্টির দোকান। গোপীনাথপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও মেলা কমিটির সভাপতি আবু সাঈদ জোয়ারদার বলেন, ঐতিহাসিক গোপীনাথপুর মেলাকে ঘিরে ব্যাপক

জনসমাগম হওয়ায় মেলার পূর্ণ নিরাপত্তা মূলক ব্যাবস্থা নেওয়া হয়েছে। আইনশৃংখলা বাহিনী অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। যাতে করে মেলার পরিবেশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে থাকে। আক্কেলপুর থানার ভাপরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ওবায়েদ বলেন, ঐতিহ্যবাহী গোপিনাথপুর মেলাকে ঘিরে এলাকার আইনশৃংখলা বজায় রাখতে অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। যাতে করে মেলার পরিবেশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে থাকে। ছবি আছে।

Previous articleমালেশিয়ায় নিহত বকুলের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম
Next articleসাঁথিয়ায় আগুনে কৃষকের বসতবাড়ি ভস্মীভূত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।