সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪
Homeসারাবাংলাসাঁথিয়ায় ২৫ বছর ধরে অবহেলিত সড়কটি স্বেচ্ছাশ্রমে মেরামত করলো গ্রামবাসী

সাঁথিয়ায় ২৫ বছর ধরে অবহেলিত সড়কটি স্বেচ্ছাশ্রমে মেরামত করলো গ্রামবাসী

আব্দুদ দাইন: পাবনার সাঁথিয়ায় ২৫ বছর ধরে অবহেলিত সড়কটি অবশেষে স্বেচ্ছাশ্রমে মেরামত করলো গ্রামবাসী। তারা উপজেলার করমজা ইউনিয়নের সমাসনারী পূর্ব পাড়া বাগজান পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার সড়কটি মেরামত করছেন। সরেজমিন ওই সড়কের আশপাশের এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে , করমজা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের সমাসনারী পূর্বপাড়া থেকে বাগজান পর্যন্ত রাস্তাটি নির্মাণ করা হয় প্রায় ২৫ বছর আগে। সমাসনারী, বাগজান, কুশিয়ারা, তারাপুর ও পাইকরহাটিসহ প্রায় ৭/৮টি গ্রামের বাসিন্দাদের চলাচলের প্রধান মাধ্যম এ সড়ক। প্রায় দুই কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে এ সড়কটির কিছু অংশ ইট বিছানো এবং এর বেশির ভাগ অংশই কাঁচা। সড়কটি নির্মাণের পর থেকে এ রাস্তায় তেমন কোনো সংস্কার না হওয়ায় প্রতি বছর বর্ষা এলেই রাস্তাটির মাটি ধুয়ে সড়কের বিভিন্ন অংশ ভেঙে পড়ে। ফলে এ সড়কটি সমাসনারী, বাগজান, কুশিয়ারা, তারাপুর ও পাইকরহাটিসহ সাত-আটটি গ্রামের বাসিন্দাদের ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়ে। রাস্তাটি পাকাকরণসহ এর সংস্কারের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে তাঁরা বারবার ধরনা দিয়েছেন। কিন্তু কোন প্রতিকার পাননি। স্থানীয় যুবলীগ নেতা মনিরুজ্জামান মিলনের নেতৃত্বে গত পাঁচদিন ধরে সমাসনারীসহ পাশর্^বর্তী গ্রামের বাসিন্দারা চাঁদা তুলে স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে প্রতিদিন পালা করে শতাধিক গ্রামবাসী সড়কটির মেরামতের কাজ শনিবার শেষ করেন। করমজা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হোসেন আলী বাগচী বলেন,রাস্তাটি পাকাকরণসহ মেরামতের জন্য ইতিমধ্যেই আমরা এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলীকে জানানো হয়েছে।’ এলজিইডির সাঁথিয়া উপজেলা প্রকৌশলী মো. শহীদুল্লাহ বলেন, ‘ওই রাস্তাটি সাঁথিয়া উপজেলার করমজা ইউনিয়নে হলেও সেটি এলজিইডির বেড়া কার্যালয়ের আওতাভূক্ত। তবে এ ব্যাপারে এলজিইডির বেড়া উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ‘রাস্তাসহ ওই এলাকাটি বেড়া নয়, সাঁথিয়া কার্যালয়ের আওতাভূক্ত। কারন বেড়া অংশ বাগজান পর্যন্ত যা অনেক আগেই পাকাকরণ করা হয়েছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments