রায়পুরে ৩৫ ঘন্টাও নিখোঁজ স্কুল ছাত্রী উদ্ধার হয়নি

তাবারক হোসেন আজাদ: সুরাইয়া আক্তার মুক্তা (১৩)। ৬ষ্ঠ শেণীর ছাত্রী। শনিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ১০টায় শিক্ষকদের নির্দেশে বাড়ী থেকে স্কুলে যায়। কিন্তু গত ৩৫ ঘন্টাও মুক্তাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। অভিভাবক ও স্বজনরা উদ্বিঘ্নে রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউপির ৮নং ওয়ার্ড বোর্ড স্কুল সংলগ্ন আবদুস সবিদ দেওয়ান বাড়ীর সামনে। এঘটনায় রোববার (১৮ অক্টোবর) বিকালে মুক্তার মা কাজল বেগম বাদি হয়ে থানায় সাধারন ডায়রি করেছেন।

নিখোঁজ সুরাইয়া আক্তার মুক্তা একই এলাকার প্রবাসি মোঃ রতনের দ্বিতীয় মেয়ে এবং কেরোয়া মানছুরা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। তার শরীরে খয়রি জামা, পড়নে সাদা পায়জামা ও মাথায়ও সাদা স্কাফ পড়িহিত স্কুল ড্রেস ছিলো। শরীরের রং ফর্সা ও উচ্চতা ৪ ফুট।

নিখোঁজ মুক্তার মা কাজল বেগম জানান, করোনায় স্কুল বন্ধ থাকলেও প্রতি শনিবার কিছুক্ষন ক্লাশ করে বাড়ীতে পড়ার জন্য বিভিন্ন বিষয়ের নোট দিতেন শিক্ষকরা। তারই ধারাবাহিকতায় শনিবার-সকালে স্কুলের উদ্দেশ্যে বাড়ী থেকে বের হয়। কিন্তু স্কুলে না গিয়ে তার বান্ধবির বাড়ীতে যেতে দেখেন তারই খালু। কোথায় যাও জানতে চাইলে বান্ধবিকে স্কুলে আনতে যাই বলে জানান মুক্তা।।-মুক্তার খোঁজে তার অভিভাবকরা-প্রতিবেশি ও স্বজনদের বাড়ীতে খোঁজ নিয়েও তাকে পায়নি। গত ২দিন (৩৫ ঘন্টা) মুক্তাকে না পাওয়ায় বাধ্য হয়ে সন্ধায় থানায় সাধারন ডায়রি করেছেন তার মা।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, সুরাইয়া আক্তার মুক্তা-স্কুলে গিয়ে বাড়ীতে ফিরে না যাওয়ায় তার মা থানায় সাধারন ডায়রি করেছেন। খোঁজখবর নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।