রায়পুরে সুইপারের শিশু মেয়েকে ধর্ষণ করলো আরেক সুইপার

তাবারক হোসেন আজাদ: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সহকর্মী সুইপারের শিশু মেয়েকে (১০) বাড়ীতে একা পেয়ে ধর্ষণ করলো আরেক সুইপার বাবুল মিয়া (৪০)। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে পৌরসভার পোষ্ট অফিস সংলগ্ন ওয়াবদা কলোনিতে। এঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) ক্ষতিগ্রস্থ শিশুর পিতা বাদি হয়ে অভিযুক্ত বাবুল মিয়াকে আসামি করে থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন।

অভিযুক্ত বাবুল মিয়া পৌরসভার পুর্বলাচ গ্রামের মৃত মমিন মিয়ার ছেলে। ঘটনার পর থেকে বাবুল মিয়া পলাতক রয়েছেন। গ্রামবাসীর মাঝে ক্ষোভ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও মামলার এজাহারে জানাযায়, ঘটনার দিন ও সময়ে শিশুটিকে তার পিতা-মাতা নীজ বসতঘরে রেখে লক্ষ্মীপুর শহরে অবস্থান করছিলেন। এসুযোগে শিশুটিকে একা পেয়ে জোড়পুর্বক ধর্ষণ করে-বাবুল মিয়া। এসময় শিশুটির চিৎকারে ওই বাড়ীর এক নারী এগিয়ে গেলে বাবুল পালিয়ে যায়। পরে পিতা -মাতা এসে শিশুটিকে উদ্ধার রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন। শিশুর পিতা অসুস্থ্য থাকার কারনে মামলা করতে সময় কালেক্ষেপন হয় বলে জানান।

এঘটনায় অভিযুক্ত বাবুল মিয়া বলেন, শয়তানের ধোকায় পড়ে এজগন্য কাজ করায় সে অনুতপ্ত।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, সুইপার বাবুল মিয়াকে আসামী করে ধর্ষণের মামলা করেছেন শিশুর পিতা। শিশুর মেডিকেল রিপোটের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাবুল মিয়াকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।