বাংলাদেশ প্রতিবেদক: সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার হেতিমগঞ্জ এলাকায় মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে একই পরিবারের দুজনসহ চার জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে একজন পথশিশু রয়েছে। কুয়াশার কারণে সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা সিমেন্ট ভর্তি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লাগায় এ দুর্ঘটনা বলে জানায় পুলিশ।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) ভোরে ৫ জন যাত্রী নিয়ে সিলেট থেকে বিয়ানীবাজারে ফিরছিল একটি মাইক্রোবাস। সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের হেতিমগঞ্জে পৌঁছালে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা একটি সিমেন্ট ভর্তি ট্রাককে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় মাইক্রোবাসটি। এতে মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়ে আগুন ধরে যায়।

এসময় মাইক্রোবাসে থাকা চালকসহ ছয় আরোহীর মধ্যে তিনজন ভাগ্যক্রমে বের হতে পারলেও অপর তিন যাত্রী অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান।

বিস্ফোরণে সিলিন্ডারের একটি টুকরার আঘাতে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ৮ বছরের এক পথশিশু মারাত্মকভাবে আহত হয়। তাকে ওসমানী মেডিকেলে নেয়া হলে মারা যায় শিশুটি।

সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাশেদুল হক চৌধুরী বলেন, পেছন থেকে একটি মাইক্রো এসে ট্রাকটিকে ধাক্কা দেয়। এরপর সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে আগুন ধরে যায়। এ সময় গাড়ির ভেতর ৩ জন মারা যায়। বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা একটি শিশুও মারা গেছে।

মাইক্রোবাসটি বিয়ানীবাজার থেকে রোগী নিয়ে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেখে ফিরছিল।

দুর্ঘটনায় আগুন লেগে ট্রাকের পেছনের চাকাসহ কিছু অংশ পুড়ে যায়।