বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ফেনীর দাগনভূঞায় ডিবি পরিচয়ে ২৭ লাখ টাকা ডাকাতির ঘটনায় দুই মাস ১০ দিন পর তিনজনকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের কাছ থেকে নগদ ৫০ হাজার টাকা এবং ব্যবহৃত প্রাইভেটকারটি জব্দ করেছে পুলিশ। এতে জড়িত আরও ছয় থেকে সাতজন পলাতক রয়েছেন।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) জেলা পুলিশ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার নুরুন্নবী জানান, মঙ্গলবার রাতে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এ সময় নগদ ৫০ হাজার টাকা ও ডাকাতিতে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়।

২১ অক্টোবর দুপুরে ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার ইসলামী ব্যাংক শাখা থেকে আবু জাফর নামে এক এজেন্ট ব্যাংক ব্যবসায়ী ২৭ লাখ ৬২ হাজার টাকা উত্তোলন করেন। এ সময় ডাকাত দলের সদস্যরা তাকে টার্গেট করে। একপর্যায়ে গ্রাহক আবু জাফর টাকা নিয়ে ব্যাংক থেকে বের হলে ভুয়া গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে তাকে অপহরণ করে গাড়িতে তুলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দয়াপুরে নিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে দিয়ে টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যায়। ঘটনার দিনই থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী আবু জাফর।

পরে মামলার দায়িত্ব নেয় জেলা গোয়েন্দা ‍পুলিশ। তারা বিভিন্ন স্থানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ও আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে ঘটনায় জড়িত তিনজনকে রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতার করে।

জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছে, এ ঘটনায় মোট ৯ জন জড়িত। তারা বিভিন্ন জেলার বাসিন্দা। তাদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন স্থানে পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই, ডাকাতি ও চাঁদাবাজিসহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে। তাদের ডাকাতি মামলায় আদালতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।