জি.এম.মিন্টু: আন্তর্জাতিক মাতৃৃভাষা দিবস পালন ও ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানাতে যশোরের কেশবপুর উপজেলার ৩১৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মধ্যে ২৫১ টিতেই কোনো শহীদমিনার নেই। শহিদ মিনার রয়েছে মাত্র ৬৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। তবে প্রত্যেকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একুশে ফেব্রুয়ারি পালিত হয়ে থাকে। সংশ্লিষ্ট্র শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, কেশবপুর উপজেলার ৩১৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সরকারি প্রাইমারি বিদ্যালয়ের সংখ্যা ১৫৮। এর মধ্যে মাগুরাডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কাটাখালি, গোপসেনা, ভান্ডারখোলা, সুন্তিয়া, হাড়িয়াগোপ, জিয়েলতলা, পাথরঘাটা, শানতলা ও ডুঙ্গাঘাটা সরকারিসহ মোট ১২টি প্রাথমিক বিদ্যলয়ে শহীদমিনার আছে। উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মাসুদুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। উপজেলার মাধ্যমিক স্কুল ৭২টি, ৫২টি মাদরাসা ও ১২টি কলেজসহ মোট ১৩৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৫৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শহীদমিনার আছে। এ ছাড়া উপজেলায় ২৫ টি কিন্ডারগার্টেন ও প্রতিবন্ধী স্কুল থাকলেও একটিতে নেই কোনো শহীদমিনার।

Previous articleআওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা উপকমিটির সদস্য হলেন কনক শরীফ
Next articleরংপুরে প্রতি বছর মাছের ঘাটতি ৯০ হাজার মেট্রিক টন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।