বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে (১০) হাত ও পা বেঁধে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে তাজবীর (১৮) নামে এক কিশোরকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে খবর পেয়ে ধর্ষণচেষ্টাকারী তাজবীরকে আটক করা হয়। তাজবীরের বিরুদ্ধে আরও কয়েকটি মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে। ভুক্তভোগী স্থানীয় নুরানী মাদ্রাসার শিক্ষার্থী। তাদের গ্রামের বাড়ি বরিশাল জেলায়।

জানা গেছে, ভুক্তভোগী ছাত্রীর পরিবার সোনাইমুড়ীতে দীর্ঘদিন থেকে বসবাস করে আসছে। সকাল ১০ টায় বখাটে কিশোর তাজবীর তাকে একা পেয়ে পাশের বাগানে নিয়ে হাত ও পা বেঁধে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তার চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় কিাশোর তাজবীর।

সোনাইমুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গিয়াস উদ্দিন জানান, ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে তাজবীবকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় সোনাইমুড়ী থানায় একটি মামলা হয়।

আসামি কিশোর হওয়া নারী ও শিশু নির্যাতন অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত-২ এর বিচারক মোহাম্মদ সামস্উদ্দীনের আদালতে উপস্থাপন করলে আদালত তাকে গাজীপুর শিশু সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানোর আদেশ দেন। ভিকটিম আজ নোয়াখালীর অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ২২ ধারা জবানবন্দি দেওয়ার পর বাবার জিম্মায় দেওয়া হয় বলেও জানান গিয়াস উদ্দিন।

Previous articleমিয়ানমারে সেনাবিরোধী বিক্ষোভে গুলি, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭
Next articleসিলেটে নারীসহ ‘মাদক সম্রাট’ পুলিশের হাতে আটক
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।