ফজলুর রহমান: আনোয়ার হোসেন। রংপুরের পীরগাছা উপজেলার তাম্বুলপুর ইউনিয়নের পূর্বদেবু গ্রামের সাধারন কৃষক কাবাজ উদ্দিন-আনোয়ারা বেগম দম্পতির কোল জুড়ে ১১ নভেম্বর ১৯৮১ সালে জন্ম। তার বাড়ীর পাশে বুড়াইল নদীর কোল ঘেঁষে সবুজ শ্যামল আবহমান গ্রাম বাংলার মেঠো পথে বেড়ে উঠা। গ্রামের অন্যান্য বালকের মতো ১৯৯২ সালে স্থানীয় নেকমামুদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা গ্রহন করেন। পরে ১৯৯৮ সালে নেকমামুদ দ্বি- মূখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস এস সি পাশ করেন। উচ্চ শিক্ষা অর্জনের ইচ্ছা থাকলেও অভাবের সংসারে দ্বারিদ্রতার কষাঘাতে অনেকটা বাধ্য হয়ে পারি দিতে হয় পথ অজানার ঢাকা শহরে। ঢাকা শহরের ইট-পাথরের অপরিচিত শহরের কাজ করতে হয় দিন মজুরের। মের্সাস কাশেম এন্ড কোম্পানী কনষ্ট্রাকশন ঢাকায় দিন মজুর হিসেবে কাজ করাকালীন অল্প দিনের মধ্যে কর্তৃপক্ষের সুনজরে পড়ায় কোম্পানীর সুপারভাইজার এর দায়িত্ব পান। অজানার শহরে আর তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। বুদ্ধিমত্তা ও কঠোর পরিশ্রমের বিনিময়ে কোম্পানীর চেয়ারম্যান তার কর্ম দক্ষতায় মুগ্ধ হয়ে কোম্পানীর ম্যানেজার পদে নিযুক্ত করেন। কোম্পানীর দায়িত্ব সুনামের সাথে পালনকালে ২০০৩ সালে একতা কনষ্ট্রাকশন কোম্পানীর জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পান। অনেক দিনের সাধনা পূরনে নিজের নামে একটি প্রতিষ্ঠান করার জন্য মনে চিন্তা আসে। অবশেষে ২০০৮ সালে নিজ উদ্দ্যোগে সফল ঠিকাদার ও সফল উদ্দ্যোক্তা হিসেবে মেসার্স আয়শা এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান এর যাত্রা শুরু করেন। প্রায় এক যুগ আগে জীবন জীবিকার তাগিদে গ্রাম ছেড়ে অজানার শহরে দু-বেলা দুমুঠো খাবারের জন্য পাড়ি দেন আনোয়ার হোসেন। সফল উদ্দ্যোক্তা ও সফল ঠিকাদার হিসেবে নিজ প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার পর ২০১০ সালে শৈশবের স্মৃতিগাথা সেই গ্রামে ফিরে আসেন। স্বাধীনতার ৪০ বছর পেরিয়ে গেলেও আশেপাশের গ্রামে বিদ্যুতের আলো জ্বললেও তার শৈশবগাথা হাজারো স্মৃতি বিজড়িত গ্রামে এখনোও বিদ্যুতের আলো পৌঁছেনি, হয়নি রাস্তাঘাটের কোন উন্নয়ন। শৈশবের স্মৃতিগাথা গ্রামকে আদর্শ গ্রামে প্রতিষ্টার লক্ষ্যে নিজ উদ্দ্যোগে গ্রামে বিদ্যুৎ নিয়ে আসেন। স্থানীয় আদর্শপাড়া বায়তুল আমান জামে মসজিদ প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভুমিকা পালন করেন। এছাড়াও তিনি নিজ ইউনিয়নের মসজিদ , মাদ্রাসা, ক্রিড়া ও বিনোদনের উন্নয়নে ব্যপক সাড়া দিচ্ছেন। তার বাড়ির পাশের বুড়াইল নদীর তীর ঘেঁষে অনেক বছর আগে গড়ে উঠেছে নেকমামুদ হাট-বাজার। পার্শ্ববর্তী অনেক হাট-বাজারের উন্নয়ন হলেও নেকমামুদ হাট-বাজারের কোন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। দীর্ঘদিন থেকে নেকমামুদ বাজার দোকান মালিক ব্যবসায়ি সমিতির নির্বাচন হয়নি। তাই বাজার উন্নয়নে কাহারো তেমন উদ্দ্যোগ নেই। অবশেষে তারই প্রচেষ্ঠায় সমিতির নির্বাচনে মালিকগন এগিয়ে আসেন। যথাযথ

নিয়মে নেকমামুদ বাজার দোকান মালিক ব্যবসায়ি সমিতির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনের তারিখ নির্ধারন করা হয়। সফল উদ্দ্যোক্তা ও নেকমামুদ বাজার দোকান মালিক ব্যবসায়ি সমিতির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনের সভাপতি প্রার্থী আনোয়ার হোসেন নেকমামুদ হাটকে আধুনিক এবং স্বয়ংসম্পূর্ণ বাজার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দৃঢ় প্রত্যয়ে বুধবার (৩১ মার্চ ) নির্বাচনে আপনাদের দোয়া ও সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রার পক্ষে ভোট চান।

Previous articleরায়পুরে স্কুলের জমি দখল করে আ’লীগ নেতার দোকানঘর নির্মাণ
Next articleঠাকুরগাঁওয়ে বিএনপি’র বিক্ষোভ সমাবেশ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।