বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর সেনবাগের ৮নং বীজবাগ ইউনিয়নে ৪র্থ শ্রেণীর স্কুলছাত্রীকে (১১) রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় এক যুবককে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে পুর্লিশ।

বুধবার (১৪ জুলাই) দুপুরে অভিযুক্ত নুরুল আমিন বাবুকে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। সে উপজেলার মধ্য-বীজবাগ গ্রামের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদের বাড়ির আবদুল করিম মিয়ার ছেলে।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) সকাল ৮টার দিকে ভুক্তভোগী শিশু মক্তব থেকে আরবী পড়া শেষে বাড়ি ফেরার পথে বখাটে বাবু তাকে রাস্তায় একা পেয়ে মুখ চেপে ধরে তার ঘরে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। পরে মৌখিক ভাবে অভিযোগ পেয়ে মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে অভিযুক্ত যুবককে নিজ বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ।

মামলার এজাহার ও পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রী (১১) মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টারদিকে বাড়ির পাশ^বর্তী মক্তব থেকে আরবী পড়ে বাড়ি ফেরার পথে একই বাড়ির আবদুল করিম মিয়ার বখাটে ছেলে বাবু ওই শিশুটিকে জোরপূর্বক রাস্তা থেকে মুখ চেপে ধরে শিশুটিকে নিজ বসতঘরে ধরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় ও যৌন হয়রানি করে। একপর্যায়ে শিশুটি শৌর চিৎকার করে দৌঁড়ে পালিয়ে গিয়ে ঘটনাটি তার মাকে অবহিত করে। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে বখাটে নুরুল আমিন প্রকাশ বাবুকে আসামি করে সেনবাগ থানায় মামলা নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আবদুল বাতেন মৃধা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Previous articleটাঙ্গাইলে অনলাইনে কোরবানির পশুর হাট, দুশ্চিন্তায় খামারিরা
Next articleঈশ্বরদীতে সর্বোচ্চ ৩২৩ জন করোনা শনাক্ত, হাসপাতালে ভর্তি ১০
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।