প্রদীপ অধিকারী: জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার আওলাই ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হত্যার উদ্দেশ্যে ৪ বছরের শিশুকে পুকুরে নিক্ষেপ।

পাঁচবিবি থানার অভিযোগ সূত্রে ও বাদীর জবান বন্দীতে জানা যায় যে, ঘটনার দিন ২ আগস্ট সোমবার বিকেলে ফতেপুর গ্রামের রায়হান এর ৪ বছরের শিশু কন্যা রাহিমুনি ও কাবিল এর নাতী জয় বাবু (৩) বালু নিয়ে কাবিলের বাড়ির পার্শ্বে খেলছিলেন। খেলার সময় কাবিলের নাতী জয় বাবু বালু হাতে নিয়ে পিছন থেকে তার দাদা কাবিলের গায়ে মারে। কাবিল রাগ হয়ে ২ শিশুকে ধাওয়া করে। বাচ্চা ২টি দৌড়িয়ে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু রায়হানের ৪ বছরের শিশু কন্যাকে কাবিল ধরে ফেলে এবং রাগান্বিত হয়ে পার্শ্বের পুকুরে ফেলে চলে আসে। পুকুরে পানি কম থাকায় বাচ্চাটি পানির মধ্যে হাবুডুবু খেয়ে পুকুরের গাইড ওয়াল ধরে উপরে উঠার চেষ্টা করে। পরে শিশুটির বাবা পুকুর থেকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। এই বিষয়ে শিশুটির বাবা সাংবাদিকদের জানান, আমি বাদী হয়ে ৩ আগস্ট মঙ্গলবার পাঁচবিবি থানার একটি অভিযোগ করি। অভিযোগের ৬ দিন পেড়িয়ে গেলেও পুলিশ কোন আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। তিনি আরো জানান, জায়গা মাপযোগ নিয়ে পার্শ্বের বাড়ির কাবিলের সাথে আমার পূর্ব শত্রুতা ছিল। এই জন্য আমার ৪ বছরের শিশু কন্যাকে কাবিল হত্যার উদ্দেশ্যে পানিতে ফেলে দেয়। আমি এর উপযুক্ত বিচার দাবী জানাচ্ছি। এই বিষয়ে কাবিলের সাথে কথা হলে তিনি জানান, গায়ে বালু দেওয়ায় রাগান্বিত হয়ে আমি এই কাজ করেছি। এই বিষয়ে পাঁচবিবি থানার ওসি তদন্ত সারোয়ার আলম সাংবাদিককের জানান, অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত প্রক্রিয়াধীন ২-১ দিনের মধ্যে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Previous articleশাহজাদপুরে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯১তম জন্মবার্ষিকী পালিত
Next articleরংপুরে বঙ্গমাতার ৯১তম জন্মবার্ষিকী দোয়া এবং আলোচনা অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পালিত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।