বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীতে ঋণের টাকা পরিশোধ করতে কিডনি বেচার মতো পথ বেছে নিয়েছেন মো. আব্দুর রব নামে এক ব্যক্তি। তিনি নোয়াখালী সদর উপজেলার মধ্যম চর শুল্লকিয়া মন্নান নগর গ্রামের সোহাগ মাঝি বাড়ির মৃত মোহাম্মদ উল্যার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, করোনায় কাজ হারিয়ে বিপাকে পড়ে ঋণের দায় পরিশোধ করতে কিডনি বিক্রি করতে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের কথা জানান আব্দুর রব। তিনি বলেন, তার রক্তের গ্রুপ ও পজেটিভ। পরিবারে ৯ জন সদস্য রয়েছেন। এক সময় চট্রগ্রামের পিএইচপি এরাবিয়ান হর্স কোম্পানীতে চাকরি করতেন। আপাতত তিনি দীর্ঘদিন ধরে বেকার জীবনযাপন করে আসছেন। বেকারত্বের চাপে হতাশায় ভুগছেন। প্রায় ১০ লাখ টাকা ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন।

ঋণ পরিশোধ করতে না পেরে তিনি বিপাকে পড়েন। ৩ ছেলেমেয়ের লেখাপড়া এবং সংসারের ব্যয়সহ ১০ লাখ টাকার ঋণ পরিশোধ করতে নিজের কিডনি বিক্রি করার কথা জানান। এ ছাড়া তার আর কোনো বিকল্প পথ নেই। তার পরিবারের ৯ সদস্যের জীবন নিয়ে লড়ছেন তিনি। তার শেষ সম্বলটুকুও বিক্রি করতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়েছেন। তিনি আবেগপ্রবণ হয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কিডনি বিক্রির প্রতিবেদন করার সিদ্ধান্তের কথা জানান। মো. আব্দুর রবের মুঠোফোন নম্বর-০১৮২১-০৪১২১৮।

Previous articleঝিকরগাছায় সড়ক দুর্ঘটনায় পিতা পুত্র নিহত
Next articleকরোনায় মৃতদের শেষ সম্মানটুকু দেখান তাঁরা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।