বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর সদর উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ মোল্লা (৫০) হত্যার ঘটনায় পুলিশ আরও দুইজনকে গ্রেফতার করেছে।

এ হত্যাকান্ডের ২৪ঘন্টার মধ্যেই পুলিশ দুই দফায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মোট ৪ আসামিকে গ্রেফতার করেছে।
গ্রেফতারকৃতরা হলো, আন্ডারচর ইউনিয়নের পশ্চিম মাইজচরা গ্রামের হেদু মিয়ার ছেলে আক্তার আহম্মদ (২৪) একই গ্রামের মফিজের ছেলে জসিম মাঝি (৩০)।
রোববার (১৫ আগস্ট) সকালে গ্রেফতারকৃত আসামিদের নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে। এর আগে, গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় উপজেরার আন্ডারচর ইউনিয়নের একাধিক স্থানে সুধারাম থানা পুলিশ ও জেলা ডিবি পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে।

এ ছাড়াও ঘটনার দিন শুক্রবার রাতে তাৎক্ষণিক দুই আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে শনিবার বিকেলে তাদেরকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করে পুলিশ। তারা হলো, আন্ডারচর ইউনিয়নের পূর্ব মাইজচরা গ্রামের আলী আহমদের ছেলে মো. সোহাগ (২৪) ও নুর মোহাম্মদের ছেলে মো. মিলন হোসেন (২৫)।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহেদ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় ঘটনায় শনিবার (১৪ আগস্ট) নিহতের ভাই আমিনুল হক বাদী হয়ে ৪০ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত পরিচয় ১০-১২ জনের বিরুদ্ধে সুধারাম মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
উল্লেখ্য, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম তালতলা নামক স্থানে এলোপাতাড়ি গুলি করে ও নির্মমভাবে কুপিয়ে বিএনপি নেতা হারুনুর রশিদ মোল্লা ওরফে হারুন মোল্লাকে হত্যা করা হয়েছে।

Previous articleচাঁপাইনবাবগঞ্জে জমি নিয়ে শত্রুতার জেরে লবণ-বিষ দিয়ে ধান নষ্ট !
Next articleবিরোধীদের জন্যও দরজা উন্মুক্ত, ‘সাধারণ ক্ষমা’ ঘোষণা করেছে তালেবান
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।