বাংলাদেশ প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম নগরীর আগ্রাবাদের বাদমতলী এলাকায় ড্রেনে পড়ে সেহরিন মাহমুদ সাদিয়া (২০) নামে কলেজ ছাত্রী নিখোঁজের ঘটনার ৫ ঘণ্টা পর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস।

সোমবার রাত ১০টার পর আগ্রাবাদ বাদামতলী মাজারের সামনে রাস্তার নালার পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় ওই তরুণী অসাবধানতাবসত নালায় পড়ে ময়লা আবর্জনার মধ্যে ডুবে যায়।

মৃত সাদিয়া (২০) নগরীর সদরঘাট ইসলামীয়া ডিগ্রী কলেজের ছাত্রী বলে জানা গেছে। তার বাড়ী নগরীর হালিশহর থানার বড়পুল মইন্যা পাড়া শুক্কুর মেম্বারের বাড়ি।

খবর পেয়ে আগ্রবাদ স্টেশন থেকে ফায়ার সার্ভিস ক্রেনের সাহায্যে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে।

আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মকর্তা নিউটন চাকমা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রাতে আগ্রবাদ মাজার গেইটের পাশের ড্রেনে ২০ বছরের কিশোরী পড়ে যায়। এমন খবর পেয়ে সাথে সাথে আমাদের উদ্ধার টিম ঘটনাস্থলে পৌছে উদ্ধার কাজ শুরু করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ইসলামিয়া কলেজের ছাত্রী সাদিয়া তার মামার সাথে আগ্রাবাদ এলাকার একটি মার্কেট থেকে চশমা কিনে বাসায় ফিরছিলেন। এসময় ফুটপাত ধরে হাটার সময় তিনি পা পিছলে খোলা ড্রেনে পড়ে যান। তাকে উদ্ধারে সঙ্গে থাকা মামা ড্রেনে ঝাপ দিলেও তিনি ব্যর্থ হয়ে উঠে আসেন৷

ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা বলছেন, প্রায় দুই কিলো মিটার পর্যন্ত এ ড্রেন বারিক বিল্ডিং মোড় পর্যন্ত গেছে। কিছু জাগায় খোলা থাকলেও বেশিরভাগ স্থানে স্ল্যাব বসানো রয়েছে৷ এছাড়া পুরো ড্রেনজুড়ে ময়লাভর্তি। তাই নিখোঁজ কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধারে বেগ পেতে হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত মাসে মুরাদপুরে পানির স্রোতে খোলা ড্রেনে পড়ে সবজি ব্যবসায়ী সালেহ আহমেদ নিখোঁজ হয়েছিলেন। কিন্তু এক মাসের বেশি সময় পার হলেও তার খোঁজ এখনো মিলেনি৷

Previous articleপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ
Next articleমোহাম্মদপুর থেকে মুফতি কাজী ইব্রাহীম আটক
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।